বিপিএলের শেষে এসে ৪০০ রানে চোখ লিটনের

0 ৬৩
লিটন দাস। ছবি : বিসিবি

বিপিএলের চলতি আসর কেমন কেটেছে লিটন কুমার দাসের? প্লে-অফ পর্ব শুরুর ঠিক আগের দিন নিজের পারফরম্যান্স নিয়ে জানতে চাওয়া হলো কুমিল্লা অধিনায়েকর কাছে। ছোট্ট কথায় তার উত্তর—ভালো, খারাপ না! যদিও ১২ ম্যাচে ৩০০ ছুঁতে না পারার আক্ষেপ কিছুটা হলেও ফুটে উঠল তার কথায়। শেষের মঞ্চে সেই আক্ষেপ মেটাতে চান এই স্টাইলিশ ব্যাটার। শেষ দুই ম্যাচে তার লক্ষ্য—সংখ্যাটাকে ৪০০তে নিয়ে যাওয়ার।

গত কয়েক আসর ধরে টানা কুমিল্লার হয়ে খেলছেন লিটন দাস। এবার দলটির নেতৃত্বও দিচ্ছেন এই তারকা ক্রিকেটার। দায়িত্বের চাপকে সঙ্গে নিয়ে লিটন যেন কিছুটা ব্যাকফুটে। শুরুর দিকে তো রানই করতে পারছিলেন না। প্রথম পাঁচ ম্যাচে একবারও ২০ এর ঘর ছুঁতে পারেননি। পরে অবশ্য রানে ফিরেছেন। সবশেষ সাত ম্যাচে ১৪০.৮৮ স্ট্রাইক রেটে তার সংগ্রহ ২৫৫ রান। এবার তার লক্ষ্য সংখ্যাটাকে ৪০০ তে নেওয়া।

শেষ চারের লড়াই শুরুর আগে কুমিল্লার অধিনায়ক নিজের পারফর্ম নিয়ে বলেছেন, ‘প্রতিটা ব্যাটসম্যান প্রতিদিন রান করবে না। এটাই সত্যি। খুবই যে খারাপ খেলেছি, তাও না। প্রায় তিনশ রানের কাছাকাছি চলে গেছি। যে ভালো খেলেছে, তার হয়তো চারশ রান বা এমন কিছু। এখনও হয়তো দুইটা খেলা বাকি আছে। দেখা যাক। আমি যদি নিজের পারফরম্যান্সটা করতে পারি, অবশ্যই চারশর বেশি করার সুযোগ থাকবে।’

ডানহাতি এই ওপেনার আরও বলেছেন, ‘আগেও বলেছি, টুর্নামেন্টটা অনেক লম্বা। এখানে একজন ব্যাটসম্যান বা বোলার দুই-তিন ম্যাচ খারাপ খেললেও ঘুরে দাঁড়ানোর সুযোগ সবসময়ই থাকে। আমারও মনে হয়, এই জিনিসটাই ছিল। অনুশীলন করেছি, কঠোর পরিশ্রম করেছি। বলব না যে, শতভাগ ফল পেয়েছি। তবে উন্নতির অনেক জায়গা আছে। আমি কাজ করে যাচ্ছি।’

আগামীকাল সোমবার ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে রংপুরের মুখোমুখি হবে কুমিল্লা। বড় ম্যাচের আগে অধিনায়কের ভাষ্য, ‘(বড় কিছুর করার) চেষ্টা করব। প্রত্যাশা বলতে, কোনো কিছুই এরকম না। প্রত্যাশা নিতে গেলে চাপ বেশি চলে আসবে। যেহেতু বড় ম্যাচ। মাঠে যাব, খেলাটা উপভোগ করব। যদি আমার দিন থাকে, দিনটা কাজে লাগানোর চেষ্টা করব।’

Leave A Reply

Your email address will not be published.