বিশ্বের সবচেয়ে আবেদনময়ী চোর

537

বিনোদন ডেস্ক : পত্রিকায় পাতায় তার বড় করে ছবি ছাপা হয়েছে। চুরির জন্য নয় মডিলিংয়ের খাতিরে। মডেলিংয়ে স্বল্প সময়ে বেশ নামও করেন। বয়স মাত্র ২১ বছর। একটি পত্রিকার হয়ে কাজও করেছেন কিছুদিন। আবার সুন্দরী হিসেবে পরিচিত দেশব্যাপী। কিন্তু চুরির দায়ে জেল খাটতে হলো তাঁকেই। আর এতেই তাঁর গায়ে লাগল বিশ্বের সবচেয়ে আবেদনময়ী চোরের তকমা।

স্তেফানি বোদোয়াঁ নাম তাঁর। থাকেন কানাডার কুইবেকে। চোরের প্রশিক্ষক তিনি। আবার একদল কিশোরী চোরের দলনেতাও। চোরের ১০ দিন গ্রেস্তোর একদিন কথাটাও ভুল প্রমাণ করেছেন তিনি। প্রায় ৪২ টি বাড়িতে সফল চুরির ঘটনা ঘটিয়েছে তার দল। তবে ধরা তাকে পড়তে হয়েছে। চুরির অপরাধে ৯০ দিন জেলও খাটতে হয়েছে। এখন থেকে তিন বছর আগের ঘটনা এটি।

জেল থেকে মুক্তি পেয়ে বাংলা সিনেমার চিত্রনাট্যের মতো চুরি ছেড়ে দেন তিনি। এরপর কিছুদিন পত্রিকায় কাজ করেছেন। কিন্তু কর্মক্ষেত্রে গোপন করেন তার অন্ধকার অতীত । দু’বছর আগে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ে তাঁর অন্ধকার অতীত এবং লাস্যময়ী বর্তমান । আর এতে স্তেফানি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সহজেই অন্যের টোপের মুখে পড়তে শুরু করে।

এদিকে তথ্য গোপন করায় যেমন তার চাকরি খোয়াতে হয়েছে তেমনি নতুন করে শাস্তির মুখেও পড়তে হয়েছে। ভোগ করতে হয়েছে দ্বিতীয় মেয়াদে ৯০ দিন কারাদণ্ড। তবে এমন কাজের জন্য অনুতাপ প্রকাশ করায় এবং ঘোরের মধ্যে এমন কাজ করে ফেলেছেন বলায় তাঁর শাস্তি অবশ্য কিছুটা শিথিল করা হয়। সপ্তাহে পাঁচদিন তিনি স্বাভাবিক জীবন যাপনের সুযোগ পান এবং শাস্তি ভোগ করতে হয় শুধু ছুটির দিনে।

x