ভারতে পাচারকালে এক নারী উদ্ধার আটক ২

0 ১০১

নাটোর প্রতিনিধি: নাটোর থেকে অপহরণ করে ভারতে পাচারকালে এক নারীকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব সদস্যরা। এ সময় অপহরণের সাথে জড়িত মোঃ শাজাহান (৩০) ও কবির হোসেন (৩৮) নামের দুই অপহরণকারীকে গতকাল সাতক্ষীরা জেলার কলোরোয়া থানাধীন সীমান্তবর্তী সোনাবাড়িয়া এলাকা হতে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত মোঃ শাজাহান যশোর জেলার মনিরামপুর থানার মশ্বিমনগর এলাকার সোবহান আলী সরদারের ছেলে এবং কবির হোসেন একই জেলার ও থানার শ্যামপুর এলাকার কাদের সরদারের ছেলে। মঙ্গলবার র‌্যাব-৫ সিপিসি-২ নাটোর ক্যাম্পের কোম্পানি অধিনায়ক মেজর আশিকুর রহমান এক প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

প্রেস ব্রিফিংয়ে র‌্যাব-৫ সিপিসি-২ নাটোর ক্যাম্পের কোম্পানি অধিনায়ক মেজর আশিকুর রহমান জানান, গত ১০ সেপ্টেম্বর ২০২৩ তারিখে নাটোর থানায় জনৈক ওয়াসিম আকরামের দায়েরকৃত অপহরণ মামলার সূত্র ধরে নাটোর র‌্যাব ক্যাম্পের একটি অপারেশন দল গতকাল ১১ সেপ্টেম্বর গোয়েন্দা তথ্য ও বিশেষ প্রযুক্তির ভিত্তিতে র‌্যাব-৬ এর সহযোগিতায় যৌথ অভিযান পরিচালনা করে সাতক্ষীরা জেলার কলোরোয়া থানাধীন সীমান্তবর্তী সোনাবাড়িয়া এলাকা হতে অপহৃত ভিকটিমকে উদ্ধারসহ অপহরণ চক্রের মুলহোতা শাহজাহান এবং কবির হোসেনকে গ্রেফতার করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অপহরণ চক্রের মুলহোতা শাহজাহান জানায়,সে ছোট থাকা অবস্থায় তার মা তাকে নিয়ে ভারতে চলে যায়।

পরবর্তীতে গত ছয় বছর আগে সে আবারো বাংলাদেশে আসে এবং যশোর মনিরামপুরের তার বাবা সোবহান আলীর সাথে বসবাস করতে থাকে। মূলত সে বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রান্তের মেয়েদের চাকুরী দেওয়াসহ বিভিন্ন প্রলোভনে আকৃষ্ট করে এবং সেই মেয়েদের ভারতে পাচার করে মোটা অংকের টাকা আয় করে থাকে। এই কাজে তাকে তার বোন জামাই কবির হোসেন সহ আরো অনেকেই সহযোগীতা করে থাকে বলেও জানায় সে।

গ্রেফতারকৃত অপহরণকারী মোঃ শাহজাহানের ভারত এবং বাংলাদেশ দুই দেশেরই নাগরিকতা থাকায় আইনশৃংখলা বাহিনীর চোখকে ফাঁকি দিয়ে সে এই অপহরণ কাজ চালিয়ে যাচ্ছিল। পরে উদ্ধারকৃত ভিকটিম ও গ্রেফতারকৃত শাহজাহান ও কবির হোসেনকে নাটোর সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

উল্লেখ্য মামলার ভিকটিমের ৭ বছর পূর্বে পারিবারিকভাবে ভিকটিমের সাথে নাটোর সদর থানার জনৈক ওয়াসিম আকরাম এর বিয়ে হয়। গত ২ মাস পূর্বে ভিকটিমের সাথে অপহরণ চক্রের মূলহোতা মোঃ শাহজাহানের মোবাইল ফোনের মাধ্যমে পরিচয় হয়। পরিচয় হওয়ার পর থেকেই শাহজাহান ভিকটিমকে ভাল বেতনে চাকুরীসহ বিভিন্ন প্রলোভন দেখাতো।

গত ৯ সেপ্টেম্বর দুপুরে ভিকটিম বাজার যাওয়ার জন্য বাড়ী হতে বের হলে আসামী সিএনজিযোগে ভিকটিমকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এ বিষয়ে ভিকটিমের স্বামী ওয়াসিম আকরাম বাদী হয়ে নাটোর সদর থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.