ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবে ‘স্বর্ণসিংহ’ পেলেন যারা

0 ১৯৪
ইতালির লিদো শহরে ভেনিস আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের ৮০তম আসরের পর্দা নেমেছে শনিবার (৯ সেপ্টেম্বর)। উৎসবের আয়োজন শুরু হয়েছিল গত ৩০ আগস্ট। টানা ১১ দিন ধরে অনুষ্ঠিত হয় অনুষ্ঠানটি। এ দিন জমকালো আয়োজনে তারকাদের হাতে সেরার পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়।
উৎসবের মূলকেন্দ্র পালাৎসো দেল সিনেমায় উদ্বোধনী ও সমাপনী আয়োজন সঞ্চালনা করেছেন ইতালিয়ান অভিনেত্রী ক্যাতেরিনা মুরিনো।
উৎসবের মর্যাদাসম্পন্ন গোল্ডেন লায়ন (স্বর্ণসিংহ) নিজের করে নিয়েছে ইয়োরগস লানতিমস নির্মিত ‘পুয়োর থিংস’। পুরস্কার পেয়ে ভীষণ উচ্ছ্বসিত ইয়োরগস লানতিমস। পাশাপাশি এর কৃতিত্ব দিয়েছেন সিনেমার নায়িকা এমা স্টোনকে।
উৎসবের সেরা অভিনেত্রীর স্বীকৃতি পেয়েছেন কেইলি স্পেনি। ‘প্রিসিলা’ বায়োপিকে প্রয়াত সংগীতশিল্পী এলভিস প্রিসলির স্ত্রীর ভূমিকায় অভিনয়ের সেরার পুরস্কারটি অর্জন করেছেন তিনি।
চলতি বছরের মূল প্রতিযোগিতায় জায়গা করে নিয়েছেন পাঁচ জন নারী পরিচালক। তাদের মধ্যে পোল্যান্ডের আগনিয়েস্কা হলান্ডের ‘গ্রিন বর্ডার’ পেয়েছে স্পেশাল জুরি প্রাইজ। পোলিশ-বেলারুশ সীমান্তে আটকে পড়া অভিবাসীদের হৃদয়বিদারক চিত্র তুলে ধরে রীতিমতো দর্শকদের হৃদয় ছুঁয়ে গেছেন তিনি।
মূল প্রতিযোগিতায় বিভাগে এবার ২৩টি চলচ্চিত্র নির্বাচিত হয়েছে। এরমধ্যে এশিয়ার একমাত্র সিনেমা জাপানের রিয়ুসুকে হামাগুচি পরিচালিত ‘এভিল ডাজ নট একজিস্ট’ গ্র্যান্ড জুরি প্রাইজ (রৌপ্যসিংহ) পেয়েছে। সেরা পরিচালকের পুরস্কার পেয়েছেন ইতালির মাত্তেও গারোনে। অভিবাসীকেন্দ্রিক সিনেমা ‘মি ক্যাপ্টেন’র জন্য এই পুরস্কার অর্জন করেন তিনি। পাশাপাশি এতে অভিনয়ের জন্য সেরা নবীন অভিনয়শিল্পীর পুরস্কার মার্সেলো মাস্ত্রোইয়ান্নি অ্যাওয়ার্ড জিতেছেন সেনেগালিজ তরুণ সেদু সার।
চিলির স্বৈরশাসক জেনারেল আওগুস্তো পিনোচেতকে কেন্দ্র করে বিদ্রুপাত্মক সিনেমা ‘এল কন্দে’র জন্য সেরা চিত্রনাট্যকার হয়েছেন চিলির পাবলো লারাইন ও গিয়ের্মো কালদেরন।
চলতি বছরের আসরে আজীবন সম্মাননা হিসেবে স্বর্ণসিংহ পেয়েছেন ইতালির নারী নির্মাতা লিলিয়ানা কাভানি এবং হংকংয়ের অভিনেতা টনি লিয়াং।
উৎসবের সমাপনী সিনেমা ছিল নেটফ্লিক্সের ‘সোসাইটি অব দ্য স্নো’। স্প্যানিশ ভাষার এই সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন হুয়ান আন্তোনিও গার্সিয়া বায়োনা।

Leave A Reply

Your email address will not be published.