ভোলাহাটে নববধূর লাশ নিয়ে পুলিশের সাথে পরিবারের বাকবিতন্ডা!

0 ১০১

ভোলাহাট (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) প্রতিনিধি: চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাটে নববধূর লাশ ময়নাতদন্তে পরিবারের বাঁধা। পুলিশ ও পরিবারের সদস্যদের সাথে বাকবিতন্ডা। অবশেষে শান্তিপূর্ণভাবে নিরশণ। লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ।

ঘটনাটি ঘটেছে ১০ জুন শনিবার উপজেলার চামা-মুশরীভূজা গ্রামে। নববধূর পারিবারিক থানা সূত্রে জানা গেছে, গোমস্তাপুর উপজেলার বাঙ্গাবাড়ী গ্রামের প্রবাসী মোঃ আলম আলীর মেয়ে আরিফার(১৫) সাথে তিন মাস পূর্বে ভোলাহাট উপজেলার চামা-মূশরীভূজা গ্রামের মোঃ মইনুল ইসলামের ছেলে মোঃ মোস্তাকিমের সাথে বিয়ে হয়।

৯ জুন রাতে নববধূ ও তাঁর স্বামী ঘুমাতে যায়। ১০ জুন সকালে তাঁর স্বামী মোস্তাকিম স্ত্রীকে মৃত্যু দেখে চিৎকার দিলে বাড়ীর মানুষসহ এলাকার লোকজন ভীড় করে। খবর পেয়ে ভোলাহাট থানা পুলিশ ময়নাতদন্তের জন্য ঘটনাস্থলে গেলে ময়নাতদন্ত না করার জন্য পুলিশের সাথে পরিবারের সদস্যরা বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়ে।

বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে পুলিশ ও পরিবারের সদস্যদের মাঝে হাতাহাতির ঘটনাও ঘটে। তবে গুরুত্বর হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। ভোলাহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মোঃ সেলিম রেজা বলেন, লাশ ময়না তদন্তের জন্য শান্তিপূর্ণভাবে এক পর্যায়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চাঁপাইনবাবগঞ্জ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য এ সময় গোমস্তাপুরের এসপি সার্কেল, গোমস্তাপুর ও নাচোল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)সহ চোখে পড়ার মত পুলিশের উপস্থিতি ছিলো। এছাড়াও স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও ওয়ার্ড সদস্যগণ স্থানীয় জনগণের উপচে পড়া ভীরের দৃশ্য চোখে পড়লেও কোনপ্রকার দূর্ঘটনা ছাড়াই শান্তিপূর্ণভাবে নিরশণ হয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.