মডেল নারিসার ইচ্ছে দেশে এসে স্থায়ী হয়ে অভিনয় করা

0 651

00আলমগীর, বিনোদন : ছোটবেলা থেকেই স্বপ্ন ছিল মিডিয়াতে কাজ করার।নারিসার মা কণ্ঠশিল্পী বিনু আহমেদ। মায়ের কাছেই থেকে গান শেখেন নারিসা। এছাড়া ছোটবেলা থেকেই লেখাপড়ার পাশাপাশি গান, অভিনয়ে মনোযোগী ছিলেন। খালাতে বোন আখী আলমগীর নারিসা জীবনের গানের অনুপ্রেরণা ছিল।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

ছোটপর্দায় একাধিক পরিচয়ে তিনি পরিচিত হতে লাগলেন। কখনো মডেল, কখনো বা উপস্থাপক। বেশ কিছু নাটকেও প্রস্তাব পান তিনি। কিন্তু মডেলিং আর উপস্থাপনার ব্যস্ততায় সময়ে করে উঠতে পারেননি। ঠিক যখন ভাবলেন নাটক-টেলিছবিতে অভিনয় করবেন তখন উচ্চশিক্ষার জন্য দেশ ছাড়তে হলো।

ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলোজি সিডনি থেকে স্নাতক সম্পন্ন করেছেন নারিসা। এখনো অস্ট্রেলিয়া আছেন তিনি। তার ইচ্ছে অস্ট্রেলিয়া থেকে রুপচর্চার কিছু টিপস দিয়ে একটি ইউটিউব চ্যানেলে চালু করার। অস্ট্রেলিয়াতে একটি ফটোগ্রাফি স্টুডিও করার ইচ্ছা আছে।

চলতি বছরে গেল সেপ্টেম্বরে দেশে ঈদ করতে এসেছিলেন নারিসা। এসেই শোবিজে কাজ করেছিলেন। এসএ টিভির সৌন্দর্য্য বিষয়ক অনুষ্ঠান ‘স্যান্ডেলিয়া সাইন অন’ এর মডেল হন। সৌজন্যে ছিলো উইমেনস ওয়ার্ল্ড এবং ওয়ারা হাউজ। এছাড়া এসএ টিভির আরেকটি অনুষ্ঠানে অংশ নেন তিনি।

নারিসার ইচ্ছে দেশে এসে স্থায়ী হয়ে অভিনয়ে নিয়মিত হবেন। তিনি বলেন, ‘যখন অস্ট্রেলিয়াতে আসি তার আগে দুটো নাটকে কাজের অফার পেয়েছিলাম। দ্রুত অস্ট্রেলিয়াতে চলে আসায় সেগুলোতে কাজ করতে পারিনি। তবে আগামীতে দেশে ফিরে অভিনয়ে নিয়মিত হবো। কারণ প্রবাসে থেকে বুঝেছি অভিনয়ের মানুষরা বাইরের জগতের মানুষের কাছে কতটা প্রিয়। আমিও সবার প্রিয় মানুষ হতে চাই; মানসম্পন্ন কাজ ও নান্দনিক অভিনয় দিয়ে। এখানে সব ঝামেলা চুকিয়ে খুব শিগগিরই দেশে ফিরতে চাই।’

Leave A Reply

Your email address will not be published.

x