মহাদেবপুরে স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে সরকারি পত্তনী জমির গাছ চুরির অভিযোগ

0 ৯২

মহাদেবপুর (নওগাঁ) প্রতিনিধি: নওগাঁর মহাদেবপুরে এক স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে সরকারি পত্তন নেয়া জমি থেকে প্রায় আড়াই লক্ষ টাকা মূল্যের বিভিন্ন প্রজাতির ২০টি গাছ চুরি করে কেটে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার হাতুড় ইউনিয়নের সাগরইল গ্রামে।

এ ঘটনায় ওয়ারিশ সূত্রে প্রাপ্ত সাগরইল গ্রামের মৃত আকবর আলীর ছেলে মতিউর রহমান ও মো. রুহুল আমিনের ছেলে শরিফুল ইসলাম বাদী হয়ে মঙ্গলবার (২২ এপ্রিল) উপজেলা ভূমি অফিসে লিখিত অভিযোগ করেন। অভিযোগসূত্রে জানা গেছে, সাগরইল মৌজায় ১ নং খতিয়ানের ২৮২ নং দাগে পত্তনী কেস নং ৭৮০/৬৯-৭০ এবং ৭৭৮/৬৯-৭০ মুলে প্রাপ্ত হয়ে দীর্ঘ ৫৫ বছর ধরে ১ একর জমি ভোগ দখল করে আসছেন তারা।

গত ঈদের আগের দিন অর্থাৎ গত ১০ এপ্রিল গাহলী উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক ও হাতুড় ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি হিমান চন্দ্র বর্মণের ভাই দুলাল চন্দ্র বর্মণের নেতৃত্বে সাগরইল গ্রামের জগেন্দী পাহানের ছেলে জবানু পাহান, চরণ পাহানের ছেলে বিমল পাহান, এঙ্গা মাড্ডির ছেলে ঘুটরু মাড্ডি, সুশিল পাহানের ছেলে প্রশান্ত পাহান, পোরশা উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামের সাদিক মাড্ডির ছেলে নগেন মাড্ডি ও বিশ্বনাথ মাড্ডি, সাগর টিক্কার ছেলে সুনিল উক্ত জমি থেকে প্রায় আড়াই লক্ষ টাকা মূল্যের বিভিন্ন প্রজাতির ২০টি গাছ চুরি করে কেটে নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত দুলাল চন্দ্র বর্মণ গাছ কাটার কথা স্বীকার করে বলেন, গাছগুলো স্থানীয় মন্দিরের এবং সেখানকার আদিবাসী লোকজন গাছগুলো কেটে মন্দিরের উন্নয়ন কাজ করছে। এ বিষয়ে সহকারি কমিশনার (ভূমি) রিফাত আরা অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.