মানবিক রোনালদো দায়িত্ব নিলেন ভূমিকম্পে সর্বস্ব হারানো শিশুর

0 ২০৫
রোনালদোর সঙ্গে দেখা করল নাবিল সাঈদ। ছবি : রয়টার্স

তুরস্কের ভূমিকম্পে প্রায় সবই হারিয়ে ফেলেছিল পর্তুগিজ সুপারস্টার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর ভক্ত নাবিল সাঈদের। ইচ্ছে ছিল—জীবনে একবার হলেও প্রিয় তারকার সঙ্গে দেখা করবে। স্বপ্ন পূরণ হয়েছে সিরিয়ান ছেলে নাবিলের। দেখা হয়েছে পছন্দের তারকার সঙ্গে।

গতকাল শনিবার (৪ মার্চ) বিট্রিশ সংবাদমাধ্যম রয়টার্সের প্রতিবেদন বলছে, ১০ বছর বয়সী নাবিল তুরস্কে ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তার জন্য উদ্ধারকারী দলের কাছে রোনালদোর সঙ্গে দেখা করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিল। সেই ভিডিও ক্লিপটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপক সহানুভূতি অর্জন করেছে এবং সৌদি কর্তৃপক্ষ তা লক্ষ্য করে।

জেনারেল এন্টারটেইনমেন্ট অথরিটির পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান তুর্কি আলালশিখ টুইটারে ক্লিপটি শেয়ার করেছেন এবং নাবিলের পরিচয় জানতে চেয়েছেন। তিনি নাবিল ও তার মাকে সৌদি আরবে স্বাগত জানান।

ভিডিওতে যখন নাবিলকে জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল যে, সে কার সঙ্গে সৌদি ভ্রমণ করতে চায়? নাবিল উত্তরে বলেছিল, ‘আমার বাবা এবং মা, কিন্তু দ্রুতই নিজেকে সংশোধন করে বলেছিল—তার বাবা আর নেই। গত ৬ ফেব্রুয়ারি তুরস্ক ও সিরিয়ায় ভয়াবহ ভূমিকম্পে নাবিলের বাবা প্রাণ হারান।’

রোনালদোর খেলা দেখার পাশাপশি তার সঙ্গে দেখার করার ইচ্ছেও পূরণ হয়েছে নাবিলের। রোনালদোকে দেখার সঙ্গে ‘আমি তোমাকে ভালবাসি’ বলে হাত মেলাতে যায় নাবিল। আর সেসময় নাবিলকে জড়িয়ে তার খোঁজখবর নেন রোনালদো।

রোনালদোর সঙ্গে দেখা করতে পেরে নাবিল জানায়, ‘আমি যখন রোনালদোকে দেখি, আমার কাছে মনে হচ্ছিল, এটা হয়তো একটা স্বপ্ন। আমি নিজেকে বিশ্বাস করতে পারছি না। আমি জানি না–কখন এই স্বপ্নের শেষ হবে। আমি আশা করি, এটা স্বপ্ন নয় সত্য।’

গণমাধ্যমের খবরে জানা গেছে, নাবিলের পড়াশোনার দায়িত্ব নিয়েছেন রোনালদো। শুধু নাবিল নয়, এর আগেও বহু পিছিয়ে পড়া শিশুর দায়িত্ব নিয়েছিলেন রোনালদো।

Leave A Reply

Your email address will not be published.