ম্যাচ জিতলেও খেপেছেন কোহলি

0 ৩২৪

সিরিজের চতুর্থ টি-টোয়েন্টিতে জিতে সমতায় ফিরেছে ভারত। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে গতকাল বৃহস্পতিবার আট রানের শ্বাসরুদ্ধকর জয় পেয়েছে স্বাগতিকেরা। কিন্তু জয়ের ম্যাচেও আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত নিয়ে খেপেছেন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি।

 

ভারতের ইনিংসের ১৪তম ওভারের ঘটনা। সূর্যকুমার যাদবের মোকাবিলা কর বল ফাইন লেগে ক্যাচ ধরেন ডেভিড মালান। আম্পায়ারের আপাতদৃষ্টিতে আউট বলে মনে হয়। আউটের ইঙ্গিত করেন তিনি। তৃতীয় আম্পায়ারও আউট দেন। কিন্তু রিপ্লেতে দেখা যায় বল মাটি ছুঁয়েছে। এ নিয়েই শুরু হয় বিতর্ক।

 

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারের প্রতিবেদন অনুসারে, ওই ঘটনা নিয়ে কোহলি বলেন, ‘আম্পায়ারের আপাতদৃষ্টিতে নেওয়া সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে তৃতীয় আম্পায়ার আউটের সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন। কিন্তু এটা বন্ধ হওয়া দরকার। নয়তো এ ধরনের সিদ্ধান্ত বড় ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দিতে পারে। আজ আমাদের ক্ষেত্রে এটা হয়েছে, কাল অন্য দলও এই সমস্যার সম্মুখীন হতে পারে। এই ধরনের ম্যাচে আমরা আরও বেশি স্বচ্ছতা আশা করি।’

 

ম্যাচটিতে ভারতের ব্যাটিং বিভাগে মূল ভূমিকা রাখেন সূর্যকুমার যাদব। তাঁকে প্রশংসায় ভাসিয়ে অধিনায়ক বলেন, ‘সূর্যকুমার দারুণ ব্যাট করেছে। আমাদের অবাক করেছে। এর আগে ঈশান কিষাণও ওর অভিষেক ম্যাচে অসাধারণ ব্যাট করেছিল। আইপিএলের কারণে আমরা বেশ কিছু সাহসী ক্রিকেটারকে দেখছি। আমি এদের অনুরাগী হয়ে উঠছি ধীরে ধীরে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে এই সিরিজের শেষ ম্যাচ ছাড়া আমাদের আর টি-টোয়েন্টি ম্যাচ নেই। তবে আমরা আশাবাদী ভালো কিছু করতে পারব। বল হাতে শার্দুলও ভাল করেছে। প্রথম ছয় ওভারে আমরা ইংল্যান্ডকে আটকে রাখতে পেরেছি। আর চাপ বাড়াতে পেরেছি ওদের ওপর।’

 

আহমেদাবাদ স্টেডিয়ামে ম্যাচটিতে আগে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ওভারে নির্ধারিত ২০ ওভারে আট উইকেটে ১৮৫ রান তোলে শ্রীলঙ্কা। তিন নম্বরে নেমে ৩১ বলে ৫৭ রানের ইনিংস খেলেন সূর্যকুমার। ১৮ বলে ৩৭ রান করেন শ্রেয়াস। ২৩ বলে ৩০ রান করেন পন্ত।

 

জবাব দিতে নেমে নির্ধারিত ওভারে আট উইকেটে ১৭৭ রানে থামে ইংল্যান্ড। দলের পক্ষে ২৩ বলে সর্বাধিক ৪৬ রান করেন বেন স্টোকস। ২৭ বলে ৪০ রান করেন জেসন রয়। এ ছাড়া শেষের দিকে আর্চারের ব্যাট থেকে আসে ১৮ রান।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.