রাকাব ও বিকেবি ব্যাংক একীভূতকরণ সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন

0 ৮৫

সালাউদ্দিন সরকার : রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক (রাকাব) ও বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক (বিকেবি) একীভূতকরণ সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবিতে রাজশাহীতে মানববন্ধন করা হয়। মঙ্গলবার সকাল ১১ টায় নগরীর সাহেব বাজারে প্রায় ১৪টি সংগঠন এই মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করে।

রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির উদ্যোগে, বাংলাদেশ জুয়েলার্স এসোসিয়েশন রাজশাহী জেলা শাখা, রাজশাহী বস্তু ব্যবসায়ী সমিতি,রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়ন, রাজশাহী জেলা ট্রাক মালিক গ্রুপ, রাজশাহী সিটি (ক্ষুদ্র) পাদুকা ব্যবসায়ী মালিক সমবায় সমিতি, রাজশাহী জেলা ইট প্রস্তুতকারক মালিক সমিতি, রাজশাহী সড়ক পরিবহণ গ্রুপ, রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদ, তরুণ ও উদীয়মান উদ্যোক্তা, জাতীয় শ্রমিক লীগ মহানগর শাখা রাজশাহী, রাজশাহী রেঁস্তোরা মালিক সমিতি, রাজশাহী জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ইউনিট কমান্ড, রাজশাহী মহানগর মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ইউনিট কমান্ড মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করে।

রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি মোঃ মাসুদুর রহমান রিংকু বলেন, তাদের এক দফা এক দাবী, রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংককে লোকশানে পরিপূর্ণ বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের সাথে একত্রীকরণ করা যাবে না। এই প্রক্রিয়া বাতিল করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, রাজশাহীর নাম আছে এমন একটিই ব্যাংক আছে, তা রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক। কিন্তু কিছু দুষ্কৃতিকারী ষড়যন্ত্র করছে ব্যাংকটি কে বিকেবির সাথে একত্রীকরণের। যা কোনো ভাবেই মেনে নেওয়া যাবে না।

বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মোঃ রুহুল আমিন প্রামানিক বলেন, রাজশাহী ও রংপুর অঞ্চলের কৃষকদের সহজ শর্তে ঋণ দেওয়ার জন্যে রাষ্ট্রপতির আদেশে এই রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক করা হয়।বর্তমানে বাংলাদেশ ব্যাংক উদ্যোগ নিয়েছে শক্তিশালী ব্যাংক ও দূর্বল ব্যাংকে একত্র করার। কিন্তু রাকাব একটি দূর্বল ব্যাংক না।

বাকেবির লোকশানের পরিমাণ বেশি। এটি দেওলিয়ার পর্যায়ে পৌঁছে গেছে। কিন্তু রাকাব বিগত তিন বছর থেকে অপারেটিং মুনাফা অর্জন করছে। যার কারণে দুটি ব্যাংক একত্রিত করে কোনো সুফল পাওয় যাবে না। উল্টো রাকাব আরো লোকশানের মুখ দেখবে।

তিনি আরো বলেন, উত্তরাঞ্চল সারাজীবন অবহেলিত। স্বাধীনতার পর পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে ও পোস্টাল একাডেমি নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা হয়,আর এখন রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে। যা কোনো ভাবেই সফল করতে দেওয়া যাবে না।

বীর মুক্তিযোদ্ধা ড.আব্দুল মান্নান বলেন, রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংককে সরানোর জন্য বহুবার ষড়যন্ত্র ও চক্রান্ত করা হয়েছে। রাকাব শুধু রাজশাহীর প্রতিষ্ঠান নয়, এটি রাজশাহী রংপুরের সকলের জন্য কাজ করে। আমরা সকলে মিলে রাকাবকে সরানোর চক্রান্ত প্রতিহত করবো এবং এই ব্যাংককে রাজশাহীতেই রাখবো।

রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক ও বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক একত্রীকরণের প্রতিবাদে আরো অনেক বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ বক্তব্য রাখেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.