রাজশাহীতে বিএনপির নেতা চাঁদসহ আটক ৭

0 ১৪৪

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীতে বিএনপির অবস্থান কর্মসূচির পথাসভা ও বিক্ষোভ মিছিলে দুই দফা লাঠিচার্জ করে নেতাকর্মীদের ছত্রভঙ্গ করে দিয়েছে পুলিশ। এ সময় জেলা বিএনপির আহবায়ক আবু সাইদ চাঁদসহ সাতজনকে আটক থানা হেফাজতে নেয়া হয়েছে। শনিবার বেলা সাড়ে ৩টার দিকে সাগরপাড়া বটতলা মোড়ে এবং পৌনে ৪টার দিকে গণকপাড়া মোড়ে পুলিশের লঠিচার্জে অন্তত আহত ১০ জন হয়েছেন বলে দাবি করেছে বিএনপি নেতারা।

বোয়ালিয়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ সোহারয়ার্দী হোসেন বলেন, বিএনপির নেতাকর্মীর অবস্থান কর্মসূচীর অনুমোদন ছিল দলীয় কার্যালয়ের সামনে ভূবন মোহন পার্কে। কিন্তু তারা অনুমদিত স্থানের বাইরে গিয়ে কর্মসূচী পালন করায় তাদের ছত্রভঙ্গ করা হয়েছে। পুলিশের নির্দেশনা অমান্য ও পুলিশের কাজে বাধা দেয়ার অভিযোগ সাতজনকে ঘটনাস্থল থেকে আটক করা হয়েছে। যাচাই বাছাই শেষে রাতে তাদের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

আটককৃতরা অন্যদের মধ্যে রয়েছেন, পবা উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব অধ্যাপক মোজাফফর হোসেন, চারঘাট উপজেলার লক্ষ্মীপুর ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান মৃধা, শলুয়া ডিগ্রি কলেজের শিক্ষক বিএনপি নেতা এমদাদুল হক, বাঘা উপজেলার হরিরামপুর এলাকার স্বপন, বাগমারার রামরামা গ্রামের মুনির হোসেন, গোদাগাড়ীর আমিনুল ইসলাম।

জেলা বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পদাক ও আহবায়াক কমিটির সদস্য গোলাম মোস্তাফা মামুন জানান, কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে নগরীর সাগরপাড়া বটতলা মোড়ে বিএনপির নেতাকর্মী অবস্থান নিয়ে পথ সভা শুরু করে। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও সাবেক এমপি হারুন অর রশিদ। পথসভা শুরুর পর পরই পুলিশ লাঠি চার্জ করে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

পরে তারা সেখান থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে গণকপাড়া মোড়ে আসলে সেখানে দ্বিতীয় দফায় লাঠিচার্জ করা হয়। এতে বিএনপি নেতারা ছত্রভঙ্গ হয়ে দলীয় কর্যালয়ে চলে যায়। পরে সেখানে সংবাদ সম্মেলন করে এ ঘটনার নিন্দা জানায় বিএনপি নেতারা।

গোলাম মোস্তফা মামুন বলেন, পুলিশের লাঠিচার্জ ও দৌড়া-দৌড়ির সময় পড়ে গিয়ে তিনিসহ অন্তত ২৫ জন আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ১০ জনকে হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা নিতে হয়েছে।

আহতরা হলেন, জেলা বিএনপির সদস্য সচিব বিশ্বনাথ সরকার, সদস্য গোলাম মোস্তফা মামুন, জেলা যুবদলের আহবায়ক মাসুদুর রহমান সজন, যুগ্ম আহবায়ক হাবিবুর রহমান হাবিব ও অরন্য কুসুম, জেলা তাতীঁ দলের আহবায়ক কুতুবউদ্দিন বাদশা, বিএনপি নেতা জালালুদ্দিন, বাগমারা উপজেলা ছাত্রদল নেতা রাশেদুজ্জামান রাসেল ও গোদাগাড়ী উপজেলা যুবদল কর্মী মিল্টন হোসন প্রমূখ।

গ্যাস-বিদ্যুৎ ও দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদসহ ১০ দফা দাবিতে কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে রাজশাহী জেলা ও মহানগর বিএনপি পৃথকভাবে অবস্থান কর্মসূচির আয়োজন করে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.