রাজশাহীতে রঙরেজিনী বুটিক ও ফ্যাশন হাউজের রজতজয়ন্তীতে দুই দিনব্যাপী এক প্রদর্শনীর উদ্বোধন

0 ১৫২
রাজশাহীতে রঙরেজিনী বুটিক ও ফ্যাশন হাউজের রজতজয়ন্তী উপলক্ষ্যে দুই দিনব্যাপী প্রদর্শনীর উদ্বোধন করা হয়েছে। শুক্রবার সকাল ১১টায় নগরীর মধুবন কনভেনশন হলে আয়োজিত অনুষ্ঠানে এই প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও বিশিষ্ট সমাজসেবী শাহীন আকতার রেণী। রঙরেজিনী‘র নিজস্ব পণ্যসম্ভার নিয়ে আয়োজিত এই প্রদর্শনীতে দেশীয় ঐহিত্য ও সংস্কৃতিকে তুলে ধরা হয়েছে। অনুষ্ঠানে অতিথিবৃন্দ ও রঙরেজিনী‘র সঙ্গে দীর্ঘ ২৫ বছর ধরে যারা আছেন, তাদের ক্রেস্ট দিয়ে সম্মাননা প্রদান করা হয়। এরআগে প্রদর্শনী ঘুরে দেখেন প্রধান অতিথি সহ অন্যান্যরা অতিথিরা।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শাহীন আকতার রেণী বলেন, রঙরেজিনী‘র স্বত্ত্বাধিকারী আফরোজা আজিজ মুন্নী একজন সফল উদ্যোক্তা। তিনি অনেক মানুষের কর্মের ব্যবস্থা করেছেন। দেশীয় ঐহিত্য ও সংস্কৃতিকে ধরে কাজ করে চলেছেন। রঙরেজিনী‘র রজতজয়ন্তী উপলক্ষ্যে দুই দিনব্যাপী প্রদর্শনী এবং প্রতিষ্ঠানটির উত্তরোত্তর সফলতা কামনা করছি।
তিনি আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারী উদ্যোক্তাদের জন্য বিভিন্ন সুযোগ সৃষ্টি করেছেন। সেটিকে কাজে লাগিয়ে অনেকে সফল হয়েছে। নারী উদ্যোক্তারা আগামীতে আরো এগিয়ে যাবে-এই কামনা করি।
রঙরেজিনী‘র স্বত্ত্বাধিকারী আফরোজা আজিজ মুন্নীর সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন  রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি মাসুদুর রহমান রিংকু, বিসিক-রাজশাহীর উপ-মহাব্যস্থাপক জাফর বায়েজীদ, সমাজসেবা অধিদপ্তর জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ আল ফিরোজ, উদ্যোক্তা আফরোজা আজিজ মুন্নীর স্বামী মোঃ তোজাম্মেল হক প্রমুখ।
রঙরেজিনী‘র স্বত্ত্বাধিকারী আফরোজা আজিজ মুন্নী বলেন, ১৯৯৭ সালে মার্চ মাসের প্রথম দিকে মাত্র ৪ জন মহিলাকে সুই সুতা ও ফ্রেম কিনে দিয়ে কাজ শেখাই, সেই থেকে শুরু। এরপর আস্তে আস্তে রঙরেজিনী বুটিক ও ফ্যাশন হাউজের জন্ম হয়। শুরুটা যদিও নেশা থেকে আজ তা পেশায় পরিণত হয়েছে। মাঠ পর্যায়ে সেলাই এর কাজ ৪জন কর্মী দিয়ে শুরু হলেও আজ তা প্রায় ১০০০ জনের বেশি মহিলা মাঠ পর্যায়ে কাজ করে। বর্তমানে রঙরেজিনী‘র নিজস্ব অফিস, কারখানা ও শো-রুম রয়েছে। বাংলাদেশের পোশাক শিল্পের শেড়ক অর্থাৎ নিজস্ব শিল্প, সংস্কৃতি, ঐহিত্যকে প্রাধান্য দিয়ে আধুনিকতাকে সঙ্গে নিয়ে এগিয়ে চলাই আমাদের উদ্দেশ্য। আর রঙরেজিনী স্বপ্ন দেখে ‘শিল্পের ছোঁয়ায় সুন্দর হোক পৃথিবী’
তিনি আরো বলেন, রাজশাহীতে এই প্রথমবারের মতো কোন বুটিক ও ফ্যাশন হাউজের রজতজয়ন্তী উপলক্ষে নিজস্ব পণ্যসম্ভার নিয়ে দুইদিনব্যাপী প্রদর্শনী ও ফ্যাশন শো এর আয়োজন করা হয়েছে। প্রদর্শনীতে আসার জন্য সকলকে অনুরোধ জানাচ্ছি।
উল্লেখ্য, উদ্বোধনী দিন শুক্রবার সকাল ১১টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত এই প্রদর্শনী চলে। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা থেকে রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয় ফ্যাশন শো। ৪ মার্চ (শনিবার) সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত এই প্রদর্শনী চলবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.