রাশিয়াকে ‘হুঁশে ফেরাতে’ শির সাহায্য চান ম্যাক্রোঁ

0 ১৯১
চীনের রাজধানী বেইজিংয়ে গ্রেট হলের বাইরে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁকে বিশেষ সামরিক কুচকাওয়াজের মাধ্যমে স্বাগত জানানো হয়। ছবি : ডয়চে ভেলে

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংকে তার প্রভাব খাটিয়ে ইউক্রেনে রাশিয়ার যুদ্ধ বন্ধ করতে ভূমিকা রাখার আহ্বান জানিয়েছেন।

বেইজিংয়ে আলোচনা শুরুর মুহূর্তে ম্যাক্রোঁ শি জিনপিংকে বলেন, ‘আমি জানি, রাশিয়াকে হুঁশে ফেরাতে আমি আপনার ওপর নির্ভর করতে পারি।’

জবাবে শি বলেন, ‘বিশ্ব শান্তির জন্য দুই দেশেরই দায়দায়িত্ব ও সামর্থ রয়েছে।

ম্যাক্রোঁ এখন রাষ্ট্রীয় সফরে চীনে অবস্থান করছেন। যদিও চীন ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসনের নিন্দা জানাতে অস্বীকৃতি জানিয়ে আসছে। খবর বিবিসির।

চীন ও ফ্রান্সের মধ্যে বাণিজ্যিক অংশীদারিত্ব বাড়াতে এই সফরে ম্যাক্রোর সঙ্গে রয়েছে ব্যবসায়ীদের একটি বড় প্রতিনিধি দল। এ’ছাড়া সেখানে রয়েছেন ইউরোপিয়ান কমিশনের প্রধান উরসুলা ভন ডার লেয়েন, যিনি চীনা নেতৃবৃন্দের সঙ্গে আলোচনার আমন্ত্রণ জানিয়েছেন।

গত কয়েক বছরে চীন ও পশ্চিমা বিশ্বের মধ্যে ক্রমান্বয়ে খারাপ হতে থাকা সম্পর্কের মধ্যে এই সফরকে খুবই গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে।

আজ বৃহস্পতিবার (৬ এপ্রিল) বেইজিংয়ে শি জিনপিংয়ের সঙ্গে রুদ্ধদ্বার বৈঠকের আগে ম্যাক্রোঁকে বিশেষ সামরিক কুচকাওয়াজের মাধ্যমে অভ্যর্থনা জানানো হয়। আজ রাতে ভন ডার লেয়েনের উপস্থিতিতে ত্রিপাক্ষিক একটি বৈঠক ও ভোজসভায় যোগ দেওয়ার কথা রয়েছে ম্যাক্রোঁ ও শি জিনপিংয়ের।

বুধবার বেইজিংয়ে পৌঁছানোর পরপরই ম্যাক্রোঁ সাংবাদিকদের বলেন, যুদ্ধ পশ্চিমা বিশ্ব ও চীনের মধ্যে অনিবার্য উত্তেজনাকর পরিস্থিতি তৈরি করছে। কিন্তু, চীনের স্বার্থ যুদ্ধকে দীর্ঘায়িত করা নয়, বরং বেইজিং এই যুদ্ধ থামাতে বিশেষ ভূমিকা রাখতে পারে।’

সম্প্রতি আন্তর্জাতিক কূটনীতিতে বৃহত্তর ভূমিকা পালনে চীন ইউক্রেনে শান্তি স্থাপনে ১২ দফা শান্তি প্রস্তাব উত্থাপন করেছে। যদিও পশ্চিমা বিশ্ব এরকম প্রস্তাবকে খারিজ করে দিয়েছে, কিন্তু ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি শি জিনপিংয়ের সঙ্গে সরাসরি আলোচনার আহ্বান জানিয়েছেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.