রাশিয়া পরমাণু যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত : পুতিন

0 ৯৭
রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। ছবি : এএফপি

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, রাশিয়া পরমাণু যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত৷ তবে খুব দ্রুত এমন আশঙ্কার কারণ দেখছি না৷

পুতিন বলেন, ব্যবহারের জন্যই অস্ত্রের অস্তিত্ব রয়েছে৷ তবে ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারি মাস থেকে ইউক্রেনে স্বঘোষিত ‘বিশেষ সামরিক অভিযান’-এর আওতায় রাশিয়া কখনো পরমাণু অস্ত্র প্রয়োগের কথা ভাবেনি৷ ইউক্রেন সংকট নিয়ে শান্তি আলোচনা করতে প্রস্তুত৷ তবে বাস্তবতার ভিত্তিতে সেই সংলাপ চালাতে হবে৷

এদিকে মার্কিন কংগ্রেসে রিপাবলিকান দল ৬,০০০ কোটি ডলার অংকের সামরিক সহায়তার প্যাকেজ আটকে রাখার ফলে যুদ্ধক্ষেত্রে ইউক্রেন বড় সমস্যায় পড়েছে৷ বিশেষ করে গোলাবারুদ ফুরিয়ে আসায় রাশিয়ার হানাদার বাহিনীর মোকাবিলা করা কঠিন হয়ে উঠেছে৷ এমন পরিস্থিতিতে অসহায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন অবশেষে সামান্য হলেও কিছু সহায়তা পাঠাতে পারছেন৷

মার্কিন প্রেসিডেন্ট গতকাল মঙ্গলবার বলেন, আপাতত ৩০ কোটি ডলার মূল্যের ক্ষেপণাস্ত্র, কামানের গোলা ও বন্দুকের গুলি ইউক্রেনে পাঠানো হবে৷ যদিও সেই সহায়তা মোটেই যথেষ্ট নয়৷ কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই সেই গোলাবারুদ শেষ হয়ে যাবে৷

মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, অন্যান্য ক্রয়ের ক্ষেত্রে সাশ্রয় করা অর্থ দিয়ে গত ডিসেম্বর মাসের পর ইউক্রেনের জন্য প্রথম মার্কিন সহায়তা সম্ভব হচ্ছে৷

বাইডেন বিরোধী রিপাবলিকান দলের উদ্দেশ্যে যত দ্রুত সম্ভব ইউক্রেনের জন্য বড় আকারের সহায়তার প্যাকেজ অনুমোদনের ডাক দিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, রাশিয়া মোটেই ইউক্রেনে থামবে না৷ রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইউরোপ, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রসহ গোটা মুক্ত বিশ্বকে ঝুঁকির মধ্যে ফেলবেন৷

হোয়াইট হাউসের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সালাইভান বলেন, বর্তমান সহায়তা প্যাকেজে দূরপাল্লার হাইমার্স রকেট, বিমান ও ট্যাংক বিধ্বংসী অস্ত্র, কামানের গোলা এবং ছোট অস্ত্রের গুলি রয়েছে৷

মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ-র প্রধান উইলিয়াম বার্নস মার্কিন কংগ্রেসকে বলেন, ইউক্রেন সাহস ও অটল প্রত্যয় হারিয়ে ফেলছে৷ তাদের গোলাবারুদ ফুরিয়ে আসছে৷ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের হাতে সে দেশকে সহায়তার সময়ও কমে চলেছে৷ এমন নিষ্ক্রিয়তার বড় মূল্য যুক্তরাষ্ট্রকে চোকাতে হবে৷

Leave A Reply

Your email address will not be published.