রাশিয়া যাচ্ছেন কিম : মার্কিন গোয়েন্দা

0 ১৩৬
উত্তর কোরিয়ার প্রধান কিম জং উন ও রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন

চলতি মাসেই মস্কো সফরে যেতে পারেন উত্তর কোরিয়ার প্রধান কিম জং উন। ক্রেমলিনে তার বৈঠক হওয়ার কথা রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে। উত্তর কোরিয়ার কাছ থেকে অস্ত্র কিনতে পারেন পুতিন। সম্প্রতি এমনই তথ্য প্রকাশ করেছে মার্কিন গোয়েন্দারা।

বিমান নয়, বুলেটপ্রুফ ট্রেনে রাশিয়া যাওয়ার কথা কিমের। পিয়ংইয়ং থেকে বুলেটপ্রুফ ট্রেনে রাশিয়ার ভ্লাদিভস্তক পর্যন্ত যাওয়ার কথা উত্তর কোরিয়ার একনায়কের। সেখান থেকে সড়কপথে তিনি যেতে পারেন মস্কো। মার্কিন প্রশাসন সূত্রে নিউ ইয়র্ক টাইমস এমনই তথ্য পেয়েছে বলে দাবি করেছে। তবে উত্তর কোরিয়া এবং রাশিয়া কোনো দেশই এবিষয়ে এখনো পর্যন্ত মুখ খোলেনি।

ইউক্রেন যুদ্ধে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র প্রয়োজন হচ্ছে রাশিয়ার। মার্কিন গোয়েন্দারা এর আগে দাবি করেছিলেন, চীনের কাছ থেকে অস্ত্র কিনছে রাশিয়া। এবার তাদের দাবি উত্তর কোরিয়ার কাছ থেকে তারা অস্ত্র কিনবে। অস্ত্রের আলোচনা করতেই কিম রাশিয়া যাচ্ছেন।

এদিকে সোমবার পূর্ব ইউক্রেনে ওয়ারফ্রন্টে গেছিলেন দেশের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। ডেপুটি প্রতিরক্ষামন্ত্রী হান্না মালিয়ার সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, পূর্ব ইউক্রেনের বাখমুত অঞ্চলে অন্তত ৩ বর্গ কিলোমিটার অঞ্চল ইউক্রেনের সেনা পুনর্দখল করেছে। গত মে মাসে ওই অঞ্চল রাশিয়ার সেনা নিজেদের দখলে নিয়েছিল।

ঝাপোরিজ্ঝিয়া অঞ্চলে অন্তত দুইটি গ্রাম ইউক্রেনের সেনা পুনর্দখল করেছে বলেও দাবি করেছেন তিনি। কিন্তু এর চেয়ে বেশি তথ্য তিনি জানাননি। নিরাপত্তার স্বার্থেই এর চেয়ে বেশি কিছু বলা যাবে না বলে জানিয়েছেন তিনি।

ওয়াশিংটনের দাবি, গত এক সপ্তাহে বাখমুত অঞ্চলে সব মিলিয়ে প্রায় ৪৭ বর্গ কিলোমিটার অঞ্চল ইউক্রেনের সেনা পুনর্দখল করেছে। গত একমাসে ইউক্রেন অনেকটাই এগিয়েছে বলে মার্কিন সেনা সূত্র সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছে। বাখমুত এবং ঝাপোরিজ্ঝিয়া অঞ্চলে রাশিয়ার প্রথম প্রতিরোধ লাইন ভেঙে গেছে বলেও আমেরিকা জানিয়েছে। রাশিয়া অবশ্য এবিষয়ে এখনো কোনো মন্তব্য করেনি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.