রুয়েটে বঙ্গবন্ধু ও সাঈদীর জানাজার তুলনা করে ছবি শেয়ার; কর্মকর্তার বিরুদ্ধে তদন্তে কমিটি গঠন

0 ৮৫
রাবি প্রতিনিধি : রাজশাহী  প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) যন্ত্রকৌশল বিভাগের সিনিয়র টেকনিক্যাল অফিসার মো. মিলনুর রশিদ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জানাজায় মানুষের উপস্থিতির সঙ্গে সম্প্রতি দেলোয়ার হোসাইন সাঈদীর জানাজায় উপস্থিতির তুলনা দেখিয়ে ফেসবুকে শেয়ার করার বিষয়টি খতিয়ে দেখতে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।
সোমবার (২৮ আগস্ট) বিকেলে উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. জাহাঙ্গীর আলমের নির্দেশক্রমে যন্ত্রকৌশল বিভাগের প্রফেসর ড. নীরেন্দ্র নাথ মুস্তফীকে সভাপতি করে তিন সদস্যবিশিষ্ট এই তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।
কমিটির অপর দুই সদস্য হচ্ছেন শহীদ শহীদুল ইসলাম হলের প্রভোষ্ট প্রফেসর ড. মো. আলী হোসেন এবং গবেষণা ও সম্প্রসারণ দপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক মুফতি মাহমুদ রনি।
আগামী  তিন কার্য দিবসের মধ্যে এই কমিটিকে তদন্তকার্য সম্পন্ন করে সুপারিশসহ মতামত প্রদানের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।
এছাড়াও রাজশাহী  প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) সকল শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শিক্ষার্থীদের জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কে এবং দেশ ও সরকার এবং রুয়েটের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করে এমন কোন বিষয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোষ্ট ও শেয়ার না করার জন্য সর্বোচ্চ সর্তকতা জারী করে একটি বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়েছে।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, রুয়েটের কোন শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শিক্ষার্থী বর্ণিত বিষয়ে কোন স্পর্শকাতর কনটেন্ট সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোষ্ট কিংবা শেয়ার করলে দায়ী ব্যক্তির বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এক্ষেত্রে রুয়েট প্রশাসন কোন ছাড় দিবে না বলেও বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।
প্রসঙ্গত, মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় আমৃত্যু কারাদণ্ড পাওয়া জামায়াতে ইসলামীর এই নেতার মৃত্যুর পর থেকে ধারাবাহিকভাবে তার জীবনকর্মসহ বিভিন্ন পোস্ট শেয়ার করেন
টেকনিক্যাল অফিসার মো. মিলনুর রশিদ। এরই অংশ হিসেবে গত ২১ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে হেয় করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়ানো জানাজার ওই ছবিটি শেয়ার করেন তিনি। এতে রুয়েটসহ পুরো রাজশাহীজুড়ে সমালোচনা ঝড় ও তোলপাড় শুরু হয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.