রৌমারীতে আত্মহত্যা ও পানিতে ডুবীসহ দুইজনের মৃত্যু

0 ২৬১

মাজহারুল ইসলাম, রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি: রৌমারী উপজেলার দাঁতভাঙ্গা গ্রামে লাইলি বেগম (৩৪) নামের এক গৃহবধু গলায় ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। উপজেলার দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের দাঁতভাঙ্গা গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটেছে। মৃত্যু গৃহবধু উপজেলার দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের উজানঝগড়ারচর গ্রামের মতিয়ার রহমানের স্ত্রী ও একই ইউনিয়নের দাঁতভাঙ্গা গ্রামের লালু মিয়ার মেয়ে।

স্থানীয় ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত ২০ বছর আগে গৃহবধু লাইলির সাথে ঝগড়ারচর গ্রামের মতিয়ার রহমানের বিয়ে হয়। তাদের ঘরে ফুটফুটে ৪ জন ছেলে ও মেয়ে রয়েছে। অপরদিকে ২ বছর আগে করোনার সময় তার একটি সন্তান পানিতে ডুবে মারা যায়। মা লাইলি বেগম তখন থেকে মানসিক ভারসাম্যহীনতায় ভোগছিলেন তিনি। ঘটানার দিন গোয়ালঘরে ধরনার সাথে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে গৃহবধু আত্মহত্যা করেন। আত্মহত্যার খবর পেয়ে রৌমারী থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে যান।

অপর দিকে পুকুরের পানিতে ডুবে বাহারজান (৬৫) নামের এক গৃহবধুর মৃত্যু হয়েছে। বুধবার বেলা ১টার দিকে উপজেলার বন্দবেড় ইউনিয়নের খনজনমারা গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে।

স্থানীয় ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, উপজেলার দক্ষিণ খজনমারা গ্রামের রিয়াজ উদ্দিনের স্ত্রী পুকুরে গোসল করতে গেলে পানিতে ডুবে যায়। অনেক খোজাখুজির পর স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে রৌমারী হাসপাতালে নিয়ে আসে। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত্যু ঘোষনা করে।

রৌমারী থানার ওসি রুপ কুমার সরকার একই দিনে পৃথক দুটি ঘটনার কথা স্বীকার করে বলেন, পরিবারে পক্ষে কোন অভিযোগ না থাকায় ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সুপারিশে লাশ দাফনের অনুমিত দেওয়া হয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.