শান্তর পরিবর্তে কে, জানাল বিসিবি

0 ৯৫
ছবি- সংগৃহীত

হ্যামস্ট্রিংয়ের ইনজুরিতে চলতি এশিয়া কাপে আর খেলা হচ্ছে না বাংলাদেশের টপ-অর্ডার ব্যাটার নাজমুল হোসেন শান্তর। চোট থেকে সেরে ওঠার পুনর্বাসন প্রক্রিয়া শুরু করার জন্যে দেশে ফিরছেন বাঁ-হাতি এই ব্যাটার।

মঙ্গলবার (৫ সেপ্টেম্বর) এক বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি জানিয়েছে এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল (এসিসি) এবং বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

শান্তর ছিটকে যাওয়া বিষয়ে বাংলাদেশ জাতীয় দলের ফিজিও বায়েজিদুল বলেছেন, ব্যাটিংয়ের সময় সে হ্যামস্ট্রিংয়ে ব্যথা অনুভবের কথা জানিয়েছে। ফিল্ডিংও করতে পারেনি। এমআরআই স্ক্যান করে দেখা গেছে, তার মাংসপেশি ছিঁড়ে গেছে। সতর্কতা হিসেবে সে এই টুর্নামেন্টে (এশিয়া কাপ) আর খেলবে না এবং সেরে ওঠার প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে দেশে ফিরবে এরপর বিশ্বকাপের প্রস্তুতি নেবে।

এশিয়া কাপে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ রান শান্তর। এশিয়া কাপের এবারের আসরের গ্রুপ পর্বে শ্রীলঙ্কা এবং আফগানিস্তানের বিপক্ষে যথাক্রমে ৮৯ এবং ১০৪ রান করেছেন বাঁ-হাতি এই টপ-অর্ডার ব্যাটার। রোববার আফগানদের বিপক্ষে ইনিংস চলাকালে বাম হ্যামস্ট্রিংয়ে কিছুটা অস্বস্তি অনুভব করেছিলেন তিনি। এরপর সোমবার তার আক্রান্ত স্থানে এমআরআই করা হয়।

তবে শুধু এশিয়া কাপেই না, চলতি বছরটা স্মরণীয় হয়ে থাকছে শান্তর জন্যে। কারণ, গেল বছরেও ওয়ানডেতে ব্যাট হাতে রান খরায় ভুগেছেন এই ব্যাটার। তবে ২০২৩ সালে পুরোটা পাল্টে গেছে দৃশ্যপট। ২০২২ সালের ডিসেম্বর পর্যন্তও শান্তর ব্যাটিং গড় ছিল ১৪ এর কাছাকাছি। কিন্তু চলতি বছরে তা ৪৩ দশমিক ১৬ ’তে এসে দাঁড়িয়েছে।

এদিকে এশিয়া কাপে শুরু থেকেই দলের সঙ্গে থাকার কথা ছিল ওপেনার লিটন দাসের। কিন্তু অসুস্থতার কারণে দলের সঙ্গে যেতে পারেননি তিনি। এরপর লিটনের বদলি হিসেবে আরেক ওপেনার এনামুল হক বিজয়কে শ্রীলঙ্কাতে উড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। সে সময় বলা হয়েছিল, ভাইরাল জ্বরে আক্রান্ত হওয়ায় এশিয়া কাপে আর খেলা হচ্ছে না লিটনের। তবে শারীরিক অবস্থার উন্নতি হওয়ার সোমবার (৪ সেপ্টেম্বর) রাত ৯টা ১৫ মিনিটে পাকিস্তানের উদ্দেশ্যে দেশ ছেড়েছেন ক্লাসিক এই ব্যাটার। এরপর মঙ্গলবার দলের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন তিনি।

ধারণা করা হয়, টুর্নামেন্টের সুপার ফোরের প্রথম ম্যাচে স্বাগতিক পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলবেন লিটন। তবে সমস্যা বাধে, কার পরিবর্তে স্কোয়াডে ফিরবেন লিটন, তা নিয়ে।

কেননা এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের (এসিসি) আইন অনুযায়ী, টুর্নামেন্ট শুরুর পর কোনো দলই নির্দিষ্ট কোনো কারণ ছাড়া স্কোয়াডে পরিবর্তন আনতে পারবে না। ইনজুরি কিংবা নির্দিষ্ট কোনো কারণে স্কোয়াড থেকে কেউ ছিটকে গেলে তার পরিবর্তে অন্য একজনকে অন্তর্ভুক্ত করা যাবে। তাই এবার শান্তর ইনজুরিতে বিষয়টি অনেকাংশে সহজ হয়ে গেল বিসিবির জন্যে। শান্তর পরিবর্তে সহজেই লিটনকে স্কোয়াডে ভেড়াতে পারবে বিসিবি। যদিও এই প্রসঙ্গে এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে কিছুই জানায়নি দেশের ক্রিকেটের নিয়ন্তা সংস্থা।

তবে বিসিবির একাধিক সূত্র জানিয়েছে, এশিয়া কাপে শান্তর বদলি হিসেবে ওপেনার লিটনকেই দলে ভেড়াচ্ছে টিম ম্যানেজমেন্ট। এ নিয়ে এসিসির সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে যোগাযোগ করেছে টিম ম্যানেজমেন্ট। এখন শুধু অফিশিয়াল ঘোষণার বাকি।

এর আগে, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পক্ষ থেকে জানানো হয়, লিটনকে এশিয়া কাপের স্কোয়াডে যুক্ত করা হলেও এখনই কাউকে বাদ দেওয়া হচ্ছে না। ক্রিকেট বোর্ডের পাঠানো বিবৃতিতে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নুর ভাষ্য, এশিয়া কাপের স্কোয়াডে কিছু চোট সমস্যা আছে। সেজন্য টিম ম্যানেজমেন্ট মনে করছে, বাড়তি খেলোয়াড় থাকা দরকার। আমরা বিসিবির মেডিকেল বিভাগের ছাড়পত্র পেয়েছি। লিটনের স্বাস্থ্য ঠিক আছে জেনে তাকে পাকিস্তান পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিই।

Leave A Reply

Your email address will not be published.