শাল্লায় সংখ্যালঘুদের উপর হামলার মুল পরিকল্পনাকারী বিএনপি – ওবায়দুল কাদের

0 ৪৭৪

রায়হান আলম,নওগাঁ: সুনামগঞ্জের শাল্লায় সংখ্যালঘুদের বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা একটি দেশ বিদেশি বিরোধী ষড়যন্ত্র। আর এই হামলার মুল পরিকল্পনাকারী হচ্ছে বিএনপি বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

তিনি সোমবার দুপুরে নওগাঁর পোরশা উপজেলার সরাইগাছি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে ভার্চুয়ালী যুক্ত হযয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেছেন।

 

তিনি বলেন, তারা সরকার পতনের আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে, নির্বাচনে ব্যর্থ হয়ে অন্ধকার চোরাগলি দিয়ে ক্ষমতায় আসার দেশী-বিদেশী ষড়যন্ত্র অব্যাহত রেখেছে। আওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধ থাকলে কোন শক্তি এ সরকারকে উৎখাত করতে পারবেনা। তিনি আরো বলেন দলের শৃঙ্খলা ভঙ্গ করে, সরকারকে প্রশ্নবিদ্ধ করে, সরকারের ভাবমূর্তি বিনষ্ট করে এমন বক্তব্য প্রদান থেকে বিরত থাকতে তিনি নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।

ওবায়দুল কাদের বলেন, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জন্ম গ্রহণ করেছিলেন বলেই আমরা আমাদের স্বাধীনতা, আমাদের পৃথক ভূখন্ড এবং লাল সবুজের পতাকা পেয়েছিলাম। যতদিন বাংলাদেশে থাকবে, যতদিন ঘন সবুজের মাঝে লাল রক্তের বৃত্ত থাকবে, যতদিন চন্দ্র সূর্য উদিত হবে, যতদিন পাখিরা গান গাইবে, যতদিন সমুদ্রের গর্জন থাকবে ততদিন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালির হৃদয় থেকে কেহ মুছে ফেলতে পারবেন না।

 

মন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনা দলীয় শৃঙ্খলা রক্ষায় অত্যন্ত কঠোর অবস্থানে রয়েছেন। যে কোন ভাবেই দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের মাধ্যমে দল সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করলে সে যতই বড় নেতা হোক তাকে তিনি কোন ছাড় দিচ্ছেন না। তাঁর নেতৃত্বে বর্তমান সরকার সাড়া দেশে ব্যাপক উন্নয়ন সাধন করেছে।

 

 

 

দেশে সুশৃঙ্খল গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা প্রবর্তিত হয়েছে। যার কারণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারা বিশ্বে সবচেয়ে সাহসী, সবচেয়ে সৎ, সবচেয়ে সুশৃঙ্খল নেতা হিসেবে একটি উল্লেখযোগ্য অবস্থানে তাঁর অবস্থান সুনিশ্চিত করেছেন। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের অভিযাত্রা অতিক্রম করছে। ইতিমধ্যে বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে রুপান্তরিত হয়েছে। উন্নয়নের এই অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে হলে সকলের সহযোগিতা একান্ত প্রয়োজন।

 

তিনি সুবিধা বাদীদের নিয়ে দল ভারী না করতে, সুবিধা বাদীদের নিয়ে কমিটি গঠন না করে ত্যাগী নেতাদের নিয়ে দলকে সুসংগঠিত করতে হবে। তিনি বলেন আওয়ামী লীগকে বাঁচাতে হলে দলের ত্যাগী পরীক্ষীত নেতাদের বাঁচাতে হবে। একটি রাজনৈতিক দলের প্রাণ হচ্ছে কর্মীরা। বসন্তের কোকিলদের কখনও দলে ঠাঁই দেয়া যাবে না।

সম্মেলনে প্রধান বক্তা খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেন, ২০০১ সাল থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত আমাদের আওয়ামীলীগের হাজার হাজার নেতাকর্মীদের বিভিন্ন ধরনের হয়রানি ও মামলা দিয়ে জেলে পাঠানো হয়েছে।

 

আমাদেরকে শুধু জামিন নিতে হয়েছে। তিনি বলেন, এখন আপনারা সবাই মায়ের কোলে আছেন, আরামে খাচ্ছেন, ঘুরে বেড়াচ্ছেন। মন্ত্রী আরো বলেন, অপশক্তিরা আর মাথা চারা দেয়ার চেষ্টা করেন না‌। আপনারা তোওবা পড়ে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে নিজের জীবনকে ধন্য করেন। দেশের উন্নয়ন করেন, দেশকে ভালোবাসেন, দেশের মধ্যে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা নিয়ে আসেন, দেশকে উন্নত সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে গড়ে তোলেন।

 

তিনি বলেন, একটি তলাবিহীন ঝুড়ী দেশ থেকে টানতে টানতে আজকে মধ্যম আয়ের দেশের স্বীকৃতি পেয়েছি। আমরা এখন উন্নত বাংলাদেশের দিকে এগিয়ে যাচ্ছি। আজকে যে দিকে তাকাই, কেউ খালি গায়ে বা খালি পায়ে নেই। হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রুস্টান মুসলিম কাউকে চেনা যায় না। যেদিকে তাকাই সেদিকেই শুধু উন্নয়ন আর উন্নয়ন।

 

পোরশা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ আনোয়ারুল ইসলামের সভাপতিত্বে আয়োজিত সম্মেলনের উদ্বোধন করেন জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সাবেক এমপি মোঃ আব্দুল মালেক।

 

প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি।

 

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন, কেন্দ্রীয় কমিটির স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডাক্তার রোকেয়া সুলতানা এবং রানীনগর-আত্রাই আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃ আনোয়ার হোসেন হেলাল।

 

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সাবেক এমপি বেগম শাহিন মনোয়ারা হক এবং পোরশা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ মোফাজ্জল হোসেন। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ব্যারিষ্টার নিজাম উদ্দীন জলিল জন এমপি, ছলিম উদ্দীন তরফদার এমপি প্রমুখ।

 

সম্মেলনে বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় আনোয়ারুল ইসলামকে সভাপতি এবং ভোটের মাধ্যমে মোফাজ্জলকে সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত করেন।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.