শেরপুর কেমিষ্ট এ্যান্ড ড্রাগিস্টস্ সমিতির একাংশের নেতাদের পাঁচ দফা দাবি

142

শেরপুর(বগুড়া)প্রতিনিধি: অনতিবিলম্বে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা ৫ দফা দাবিসহ শেরপুর উপজেলা কেমিষ্ট এ্যান্ড ড্রাগিস্ট সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম ও দর্নীতির অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করে একই কমিটির ১৪জন নেতা।
১৮ ডিসেম্বর বুধবার বিকেলে শেরপুরের স্থানীয় একটি কমিউনিটি সেন্টারে সংবাদ সম্মেলন লিখিত বক্তব্যে নির্বাচন তফশীল ঘোষণা করা, সমিতির কার্যালয় তালাবদ্ধ থাকায় খোলার ব্যবস্থা, বাৎসরিক আয়-ব্যায়ের হিসাব-নিকাশ না দেয়া, মৃত সদস্যদের টাকা প্রদান ও অফিস সহকারির বকেয়া বেতন পরিশোধ সহ নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ আনা হয়।
শেরপুর উপজেলা ড্রাগিষ্ট এন্ড কেমিষ্ট সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, শেরপুর উপজেলা ড্রাগিষ্ট এন্ড কেমিষ্ট সমিতি’র ২ বছর মেয়াদী কমিটির মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে ৩বছর পার হয়। এতে মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটির সভাপতি মোকারম হোসেন রবি ও সাধারণ সম্পাদক শেখর লাল কুন্ডু লুদু মিলে বহাল তবিয়তে সমিতির বিভিন্ন কার্যক্রম চালিয়ে আসছে। ১৯ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি মেয়াদ শেষ হওয়ায় একই কমিটির ১৪জন নেতা রেজুলেশন করে ওই কমিটি ভেঙ্গে দিতে জেলা কমিটির কাছে লিখিত আবেদন করে। তাদের আবেদনের প্রেক্ষিতে জেলা কমিটির নির্দেশ অমান্য করে এখনও বহাল তবিয়তে সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক তাদের অবৈধ কর্মকান্ড চালিয়ে আসছে।
তবে উপজেলা কেমিষ্ট এন্ড ড্রাগিস্টস সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক সমিতির দীর্ঘ ২৭ বছরের আয়-ব্যায়ের হিসাব-নিকাশ, অফিস সহকারির ৩ বছরের বেতনভাতা বন্ধ রাখা, তাছাড়া সমিতির অফিস ঘর বন্ধ রেখে মনগড়াভাবে অবৈধ কর্মকান্ড পরিচালনা করা, এমনকি কমিটির ১৪জন নেতাকে অবমূল্যায়ন ও মাসিক বৈঠকে না ডাকা, ব্যাংক হিসেবে কোষাধ্যক্ষকে হিসাব-নিকাশ না দেয়া, উপজেলার প্রায় ৫শতাধিক লাইসেন্সধারী ঔষধের দোকানের ভর্তি ফি, নতুন লাইসেন্স করে দেয়ার নামে অতিরিক্ত অর্থ নেয়া, প্রায় ৫/৬ শ’ ঔষধের দোকানে লাইসেন্স ছাড়াই পরিচালনার গোপন আদেশসহ, বিভিন্ন অনুষ্ঠানের নামে ঔষধ কোম্পানীর কাছ থেকে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের মাধ্যমে লক্ষ লক্ষ টাকা আত্মসাৎ করা নানা অনিয়ম দুর্নীতি করে আসছে বলে সম্মেলনে সমিতির একাংশে নেতাকর্মীরা উল্লেখ করেন। উপস্থিত নেতাকর্মীরা অবিলম্বে উপজেলা কেমিষ্ট এন্ড ড্রাগিষ্ট সমিতি’র অবৈধ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে ব্যবস্থাসহ নির্বাচনের তফসীল ঘোষণাসহ ৫ দফা দাবী জানান। এসময় সম্মেলনে ১৯ সদস্য কমিটির মধ্যে ১৪জন পদস্থ নেতা একেএম মামুনুর রশিদ, আনছার আলী, নাহিদ রানা, রুহুল আমিন, ফরহাদ হোসেন মুন্না, আব্দুস সালাম, আবু সামেয়, সমীর কুমার অধিকারী, জহুরুল ইসলাম, অশোক গোস্বামী, আব্দুল করিম, সাইফুল ইসলাম লেলিন, লুৎফর রহমান ফকির, ওবায়দুর রহমান প্রমুখ নেতা ও সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

x