সিরাজগঞ্জে মেডিকেলের সামনে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

0 ৫০
সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জে শহীদ এম মনসুর আলী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সমানে গড়ে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে।  গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা প্রশাসন ও সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো.মনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করে মেডিকেলের এসব অবৈধ স্থাপনাগুলো ভেঙ্গে দেয়া হয়।
তবে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে সংশ্লিষ্ট দপ্তরগুলো থেকে জানা যায়। এদিকে গত ১৪ই ফেব্রুয়ারী অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের বিষয়ে জাতীয় পত্রিকা ও সিরাজগঞ্জের স্থানীয় পত্রিকাগুলোতে একটি স্বচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশ হয়।
উল্লেখ্য, অবৈধ স্থাপনার সরানোর জন্য ২০২২ সালের (২৫’আগষ্ট) বৃহস্পতিবার জাতীয় ও স্থানীয় বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পর ২০২৩ সালের (১৯’জানুয়ারী) বৃহস্পতিবার সড়ক বিভাগের জায়গা থেকে অবৈধ স্থাপনা সরানোর নোটিশ প্রেরন করেন এবং তা ভেঙ্গে ফেলার জন্য ক্রস লাল দাগ দিয়ে ঘর মালিকদের অবহিত করেন।
সিরাজগঞ্জ -বগুড়া আঞ্চলিক মহাসড়কের দু’পাশে চন্ডিদাসগাতীঁ বেইলী ব্রীজ পর্যন্ত চার কিলোমিটার ৪ লেনের রাস্তার কাজ এগিয়ে চলছে। এদিকে রাস্তার দু’পাশে সড়ক ও জনপথের জায়গা দখল করে শতাধিক অবৈধ স্থাপনা ধীরে ধীরে বেড়ে চলছিলো।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, এ ছাড়া কাজিপুর রাস্তার মোড় থেকে চন্ডীদাসগাতীঁ ব্রীজ পর্যন্ত প্রায় ৪ কিলোমিটার চার লেনের রাস্তার কাজ শেষ হয়নি। রাস্তার দু’পাশে মাটির ভরাটসহ ড্রেন নিমার্ণের কাজ অবশিষ্ট রয়েছে।
সংশ্লিষ্ট অফিস সূত্রে জানা যায়, ৪ লেনের প্রস্থ ১৮ মিটার। দুই পাশের রাস্তার প্রস্থ ৭.৩ মিটার। মাঝে আইল্যান্ড থাকবে ১ মিটার এবং দুই পাশে ফুটপাথ কাম ড্রেন হবে ১.২ মিটার। এর পাশে মাটির সোল্ডার নিমার্ণ করে বৃক্ষ রোপন করা হবে।
পথচারী আব্দুল ওহাব জানান, প্রশাসনকে বৃধাঙ্গুলি দেখিয়ে ক্ষমতাধর ব্যক্তিরাই সরকারী জায়গা দখল করে স্থায়ীভাবে পাঁকা ইমারত নিমার্ণ করছে। যা কেউ দেখেও দেখে না।
সরকারী মুরগীর প্রজনন খামারের ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপক হাবিবুর রহমান জানান, রাস্তার পাশে সড়ক বিভাগ থেকে এসে মেপে গেলেও আজও সরকারী জায়গা দখল করে অবৈধ স্থাপনা বন্ধের ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।
শহীদ এম মনসুর আলী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক জানান, আশেপাশের এলাকা বস্তির মতো হয়ে গেছে। অতিদ্রুত ব্যবস্থা না নিলে হাসপাতালের পরিবেশ আরো খারাপ আকার ধারন করবে।
সিরাজগঞ্জ সড়ক বিভাগের উপ বিভাগীয় প্রকৌশলী মো. জাহিদুর রহমান মিলু জানান, সড়ক ও জনপথের জায়গা দখল করে গড়ে তোলা অবৈধ স্থাপনা দ্রুত সময়ের মধ্যে ভেঙ্গে ফেলা হবে।
সিরাজগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো: আবুল কালাম আজাদ জানান, এই প্রকল্পের কাজ চলমান আছে, সড়ক বিভাগের জায়গায় গড়ে ওঠা সকল অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.