সিরিয়ার আফরিনে তুর্কি অভিযান নিহত ২৬০

0 734

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর আফরিনে তুর্কি বাহিনীর অভিযানে ২৬০ কুর্দি ও ইসলামিক স্টেট (আইএস) যোদ্ধা নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছে দেশটির সেনাবাহিনী। তবে এই দাবি প্রত্যাখ্যান করেছেন এক কুর্দি কমান্ডার।
তুর্কি বাহিনী জানিয়েছে, অভিযানের তাদের এক সেনাও নিহত হয়েছে।
এর আগে আফরিন থেকে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী কুর্দিশ পিপলস প্রোটেকশন ইউনিটের (ওয়াইপিজে) সদস্যদের ধরা হবে- তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ানের এমন ঘোষণার পরই শনিবার দেশটির সেনারা সেখানে বিমান হামলা শুরু করে।
তুর্কি সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়, সিরীয় বিদ্রোহী সংগঠন ফ্রি সিরিয়ান আর্মির সহায়তায় কুর্দি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে ওই অভিযান চালানো হয়েছে। আফরিন শহরে কুর্দিদের ১১টি অবস্থান নিয়ন্ত্রণে নিয়ে সেখানে ‘নিরাপদ অঞ্চল’ ঘোষণাও করে তুরস্কের সেনারা।
আইএসবিরোধী যুদ্ধে ওয়াইপিজেকে সবচেয়ে সক্রিয় বাহিনী মনে করে যুক্তরাষ্ট্র। অপরদিকে ন্যাটোতে যুক্তরাষ্ট্রের ঘনিষ্ঠ মিত্র তুরস্ক।
ওই হামলা না করতে তুরস্ককে হুঁশিয়ারি দিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। কিন্তু মার্কিন হুঁশিয়ারি উপেক্ষা করেই ‘অপারেশন অলিভ ব্রাঞ্চ’ নামের ওই অভিযান শুরু করে তুর্কি সেনারা। মার্কিন হুঁশিয়ারির নিন্দাও জানায় দেশটি। ১৫৩টি কুর্দি ঘাঁটি লক্ষ্য করে হামলা চালায় তুর্কি সেনারা।
এতে মস্কো সমর্থন না দিলেও হামলা শুরুর পর আফরিন থেকে সেনা সরিয়ে নেয় রাশিয়া।
এদিকে এই ইস্যুতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে বুধবার ফোনে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান কথা বলবেন বলে জানিয়েছেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কভুসগলু। ব্রেকিংনিউজ

Leave A Reply

Your email address will not be published.

x