সিলেটজুড়ে জয়া আহসানের ‘পেট্রা ট্যুর’

0 ৬৩৭

আলমগীর,বিনোদন :
নায়িকা জয়া আহসান ঢাকায় নেমেই ফের উড়াল দিলেন সিলেটে। সেরে এলেন চারদিনের ‘পেট্রা ট্যুর’। দুই বাংলার সাম্প্রতিক প্রধান নায়িকা জয়া আহসানের অভিব্যক্তি এমন, গত হওয়া শুক্র থেকে সোম (২-৫ ফেব্রুয়ারি)- তার জীবনের অন্যতম আনন্দ সময় কেটেছে।
এই সফরে জয়ার সঙ্গে ছিলেন তার মা রেহানা মাসউদ, বোন কান্তা করিম আর ভগ্নিপতি। কিন্তু কলকাতা থেকে ফিরেই সপরিবারে জয়া আহসানের এই সিলেট সফর কেন? তাছাড়া একান্ত সময় কাটানোর জন্য দেশের বাইরে যাওয়াটাই তো তারকাদের নিয়মিত নিয়ম।
সন্দেহ প্রকাশ করতেই জয়ার জবাব, ‘সিলেটকে এবার যেভাবে প্ল্যান করে প্রায় পুরোটাই দেখেছি, সেটা আগে কখনও হয়নি। সেখানকার শ্রীমঙ্গল চা বাগান, লালা খাল, জাফলংসহ প্রচুর নৈসর্গিক স্থানে ঘুরেছি মনভরে। সত্যিই নিজেদের সতেজ করে ফিরলাম। এমন একটা সফর খুব দরকার ছিল।’
এমন কথোপকথনের ফাঁকে জয়ার কণ্ঠের একটা লাইন ছিল এমন, মূলত এই সফরটি যার জন্য করেছেন, সে-ই নাকি সবচেয়ে খুশি। এটাই নাকি সফরের বড় সাকসেস! কিন্তু কে সে? মা, বোন-ভগ্নিপতি নাকি অন্য কেউ! অবশ্য অব দ্য রেকর্ড হলে বলার দরকার নেই। ব্যক্তিগত সফর বলে কথা! হতেই পারে…
সফরের মধ্যমণি ক্লিওপেট্রাকে নিয়ে…
জয়া সিরিয়াস টোন নিয়েই জবাব দিলেন, ‘এই সফরটা মূলত পেট্রা’র জন্য। ওকে ছাড়া তো আসলে ঘরের বাইরে পা-ও ফেলতে ইচ্ছা করে না। ভয়ঙ্কর খারাপ লাগে। তবুও ফেলতে হয়। দেশের মধ্যে হলে সঙ্গে নিয়ে যাই। কিন্তু বিদেশ হলে তো আর সেটা পারি না। ওকে ছাড়াই যেতে হয়। জানুয়ারির পুরোটা ওকে ছাড়া কাটিয়েছি কলকাতায়। সেখানে থাকতেই প্ল্যান করেছি ঢাকায় গিয়ে ওকে নিয়ে সোজা সিলেট যাবো। মনভরে বেড়াবো। তাই হলো। ও খুশি, আমরাও।’
মন্তব্যে স্পষ্ট পেট্রার প্রতি তার ভেতরে কতটা টান আর অপরাধবোধ। কিন্তু কে এই পেট্রা?
জয়া এবার আদুরে কণ্ঠেই জানালেন, ‘ও আমার ক্লিওপেট্রা। ডাক নাম পেট্রা। পরিবারের সবচেয়ে আদরের সদস্য, গুরুত্বপূর্ণও বটে। মূলত ওকে ঘোরানোর জন্যই আমাদের এই আনন্দ সফর।’
জয়ার সঙ্গে ক্লিওপেট্রার দুষ্টুমি, পাশে মা রেহানা মাসউদ
এদিকে ক্লিওপেট্রাকে নিয়ে সপরিবারে আনন্দ-সময় পেরিয়ে ৬ ফেব্রুয়ারি সিলেট থেকে ঢাকায় ফিরেছেন জয়া আহসান। ফিরেই ব্যাগ গোছানোর পালা। আসছে সপ্তাহে লম্বা সময়ের জন্য যাচ্ছেন কলকাতায়। ১৭ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে ‘এক যে ছিল রাজা’র টানা আউটডোর শুটিং। এর আগে ২ জানুয়ারি থেকে টানা একমাস করে এসেছেন ইনডোর শুটিং। এদিকে এই ছবির শুটিং শেষ করেই জয়া যোগ দেবেন উত্তম-সুপ্রিয়া দেবী অভিনীত ‘চৌরঙ্গী’ ছবির রিমেক প্রজেক্টে। এখানে সুপ্রিয়া দেবীর চরিত্রে অভিনয় করবেন জয়া।
জয়া বলেন, ‘‘আশা করছি এই বছরের পুরোটাই ব্যস্ত থাকবো। অনেক কাজ করতে হবে। সৃজিতের ‘এক যে ছিল রাজা’ আর ‘চৌরঙ্গী’ ছাড়াও বেশ ক’টি বড় ছবির কথা হয়ে আছে। তাই বছরের বেশিরভাগ সময় এবার কলকাতাতেই থাকতে হবে। সব মিলিয়েই আসলে সিলেটের সফরটা করে ফেললাম। আমি, পেট্রা, আম্মা-বোন সবাই রিফ্রেশ হয়ে এলাম।’’

Leave A Reply

Your email address will not be published.