হইচইতে আসছে নতুন ৬ সিরিজ, থাকছেন জয়া-পরীরা

0 ৬৪
হইচইতে আসছে নতুন ৬ সিরিজ। ছবি : ফেসবুক থেকে নেওয়া

নতুন মৌসুম ঘোষনা করেছেন ওটিটি প্লাটফর্ম হইচই। নতুন বছরে বাংলাদেশ থেকে ছয়টি নতুন কনটেন্ট নির্মাণ করতে যাচ্ছেন তারা। এই ছয়টির মধ্যে দুটির মাধ্যমে হইচইতে অভিষেক ঘটতে যাচ্ছে দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসানের ও আলোচিত অভিনেত্রী পরী মণির।

এছাড়া আরও অভিনয় করবেন জনপ্রিয় অভিনেতা মোশাররফ করিম, চঞ্চল চৌধুরী, জিয়াউল ফারুক অপূর্ব ও মেহজাবিন চৌধুরী।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ ২৬ মার্চ দুপুরে হইচই বছর জুড়ে আসন্ন ওয়েব সিরিজ গুলোর লাইন-আপ প্রকাশ করেছে। এবারের জাকঝমকপূর্ণ হইচই মিট ২০২৪-এর লাইন-আপ ঘোষণা করা হয় ডিজিটাল মাধ্যমে। ভক্তদের প্রিয় নির্মাতা অমিতাভ রেজা চৌধুরী ও আশফাক নিপুনকে ফিরিয়ে আনার পাশাপাশি জনপ্রিয় ও পুরস্কারপ্রাপ্ত পরিচালক ভিকি জাহেদ, অনম বিশ্বাসও আছেন নির্মাতার তালিকায়।

অভিনেত্রী পরি মণির অভিষেক হচ্ছে ‘রঙিলা কিতাব’ সিরিজের মাধ্যমে। কিঙ্কর আহসানের উপন্যাস থেকে এটি নির্মাণ করেছেন অনম বিশ্বাস। গল্প সম্পর্কে জানা যায়, বরিশালের একটি ছোট শহরের গ্যাংস্টার প্রদীপ প্রথমবারের মতো বাবা হতে যাচ্ছে জানার পরে তার অপরাধ জীবনকে বিদায় বলার সিদ্ধান্ত নেয়। তবে পরের দিনই স্থানীয় এমপির হত্যার জন্য অন্যায়ভাবে দোষী সাব্যস্ত হয় প্রদীপ।তারপর থেকে পালিয়ে বেডায় প্রদীপ। এখন তাঁর সবচেয়ে বড় দায়িত্ব নিজেকে এবং তার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে পুলিশ ও অজানা বিপদ থেকে রক্ষা করা।

মহানগর খ্যাত নির্মাতা আশফাক নিপুন প্রথমবার হইচইতে নিয়ে আসছেন জয়া আহসানকে। তাকে নিয়ে নির্মাণ করছেন ‘জিম্মি’। গল্প সম্পর্কে জানা যায়, জয়া আহসান সরকারী নিম্নপদস্থ কর্মচারী একজন মহিলা। ১০ বছর ধরে তিনি কোনো প্রমোশন পায়না। স্বামী স্ত্রীর টানাটানির সংসার। উচ্চাকাঙখী মহিলাটি একদিন অফিসের স্টোররুমে একটা বড় অংকের টাকার বাক্স পায়। এই হঠাৎ পাওয়া টাকা নিয়ে শুরু হয় টানাপোড়েন। শেষ পর্যন্ত লোভের কাছে জিম্মি হয়ে পড়ে মহিলাটি।

গেল বছর বুকের ভেতর আগুন সিরিজ দিয়ে হইচই তে এসেছিলেন অপূর্ব। সিরিজটিতে তিনি গোলাম মামুন চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন তিনি। এবার নতুন কেস নিয়ে হাজির হচ্ছেন তিনি। সিরিজটির নাম রাখা হয়েছে গোলাম মামুন। গল্প সম্পর্কে জানা যায়, জিয়াউল ফারুক অপূর্ব, নিজের আততায়ীকে খুনের দায়ে আটক হয় মামুন। সঙ্গে বন্ধু দম্পতির খুনেও জড়িয়ে যায় তার নাম। আইনরক্ষক মামুনকে আইন ভেঙ্গে পুলিশের হাত থেকে পালাতে হয় নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করতে। কিন্তু বাইরেও অপেক্ষা করছে আরো বড় বিপদ।

ছয়টি সিরিজের মধ্যে দুটি নির্মাণ করেছেন ভিকি জাহেদ। এরমধ্যে একটি নির্মাণ করছেন চঞ্চল চৌধুরীকে নিয়ে। নাম দিয়েছেন রুমি। গল্প প্রসঙ্গে নির্মাতা জানান, চঞ্চল চৌধুরী প্রতিষ্ঠিত সিআইডি অফিসার রুমি যখন দুর্ঘটনাক্রমে চোখ হারান, তখন তিনি অদ্ভুত স্বপ্ন দেখেন। এই স্বপ্নগুলো অন্য স্বপ্নের মতো স্বাভাবিক নয়, এগুলোর পেছনে একটা অর্থ আছে; এই সূত্রগুলি রুমিকে এখন যে হত্যা মামলাটি সমাধান করছে তা সমাধান করতে সহায়তা করবে, নাকি তার জন্য একটি জটিল ধাঁধা তৈরি করবে তাই জানা যাবে সিরিজে।

এছাড়া ‘মিথ্যাবাদী’ নামে আরও একটি সিরিজ নির্মাণ করছেন ভিকি জাহেদ। এতে অভিনয় করছেন মেহজাবিন চৌধুরী। গল্পে দেখা যাবে, মেহজাবিন চৌধুরী হাজবেন্ড এর প্রতি শতভাগ লয়্যাল একজন স্ত্রী। সন্তান জন্মদানের ৪ বছর পর জানতে পারে তাঁর হাজবেন্ড সন্তান জন্মদানে সম্পূর্ণভাবে অক্ষম। স্ত্রী এর মনে প্রশ্ন তাহলে এই সন্তান কার! সন্দেহের বশীভূত হয়ে মামলা করে তাঁর শ্বশুর ও ভাসুর এর বিরুদ্ধে।

সবশেষ সিরিজটি নির্মাণ করছেন অমিতাভ রেজা চৌধুরী। মোশাররফ করিমকে নিয়ে তার সিরিজের নাম ‘বোহেমিয়ান ঘোড়া’। গল্প প্রসঙ্গে জানা যায়, মোশাররফ করিম ট্রাক ড্রাইভার আব্বাস একজন দুর্দান্ত প্রেমিক মানুষ। সাত জেলায় থাকা সাত বউকে একে অপরের থেকে গোপন রেখে সে সুনিপুণ ভাবে সাত সংসার সামলায়। এদিকে একজন বৃদ্ধের সঙ্গে বিয়ে হওয়া থেকে সদ্য যুবতী সুন্দরীকে বাঁচানোর পর সুন্দরী আব্বাসের প্রেমে পড়ে ও তাকে বিয়ে করতে চায়। কিন্তু আব্বাস জানে আট মানে সর্বনাশ তাই সুন্দরীকে বিয়ে করতে না চাইলেও একপ্রকার বাধ্য হয়ে বিয়ে করতে হয় তাকে। এরপর শুরু হয় গন্ডগোল। আব্বাসের সাত সংসারে শুরু হয় বিভিন্নরকম ঝামেলা। এই নিয়ে এগিয়ে চলে গল্প।’

Leave A Reply

Your email address will not be published.