হিলারিকে ‘জেলে পাঠাবেন’ না প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প

0 642

trump-hillaryআন্তর্জাতিক ডেস্ক : ব্যক্তিগত ইমেইল ব্যবহার করে রাষ্ট্রীয় বার্তা আদান-প্রদানের অভিযোগে হিলারি ক্লিনটনকে জেলে পাঠাবেন—এটি ছিল ডোনাল্ড ট্রাম্পের সবচেয়ে বড় নির্বাচনী প্রতিশ্রুতিগুলোর একটি। এখন তা থেকে পিছু হটেছেন যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

ট্রাম্প বলেছেন, হিলারি ক্লিনটনকে আর কষ্ট দিতে চান না তিনি। খবর বিবিসির

এই নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি থেকে পুরোপুরি উল্টো পথে যাওয়ার সিদ্ধান্তের পক্ষে যুক্তি দিয়ে ট্রাম্প বলেছেন, ওরকম কিছু করলে বরং মানুষজনের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি হবে।

তার মুখপাত্র কেলিয়ান কনওয়ে স্থানীয় গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ট্রাম্প আরও জরুরি বিষয়ে মনোনিবেশ করছেন।

তিনি আরও বলছেন, যুক্তরাষ্ট্রের বেশিরভাগ মানুষ যে হিলারি ক্লিনটনকে বিশ্বাসযোগ্য বলে মনে করেনি সেই সত্যের মুখোমুখি তাকে হতে হবে।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী থাকাকালীন হিলারি ক্লিনটন ব্যক্তিগত ইমেইল ব্যবহার করে রাষ্ট্রীয় বার্তা আদান-প্রদান করেছেন বলে অভিযোগ উঠার পর বিষয়টির তদন্ত করে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই। সেজন্য তাকে ‘জেলে পাঠাবেন’ বলে দেয়া প্রতিশ্রুতি থেকে সরে আসার সিদ্ধান্তে অবশ্য ট্রাম্পের ওপর চটেছেন তার সমর্থকরা। তাকে রীতিমতো ‘বিশ্বাসঘাতক’ বলে আখ্যা দিয়ে ফেলেছেন কেউ কেউ।

এছাড়া নির্বাচনের সময় কঠোরভাবে প্রচারণা চালিয়েছেন এরকম আরও ২০টি ইস্যুতেও এখন ‘ভিন্ন সুরে’ কথা বলছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। যেমন-জলবায়ু পরিবর্তনকে প্রচারণার সময় ‘আষাঢ়ে গল্প’ বলে আখ্যা দিয়ে এখন ট্রাম্প বলছেন, বিষয়টি তিনি ‘খোলা মনে’ দেখতে চান।

শ্বেতাঙ্গ উগ্রবাদীদের সমর্থন নিয়েছেন—এমন অভিযোগের জবাবে ট্রাম্প বলেছেন, এরকম কোন গোষ্ঠীকে ‘শক্তিশালী’ করার কোন ইচ্ছে তার নেই।

Leave A Reply

Your email address will not be published.