১৫ দিন ধরে নিখোঁজ ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর নারী সন্ধান চেয়ে মানববন্ধন

0 ৫৫

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী মহানগরীর শাহ মখদুম থানার পবা নতুনপাড়ায় ১৫ দিন থেকে নিখোঁজ ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর নারী সাগরীর সন্ধান চেয়ে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে।
গতকাল বৃহস্পতিবার (২৮ মার্চ) বেলা ১১টার দিকে মহানগরীর সাহেব বাজার জিরোপয়েন্টে সচেতন রাজশাহীবাসীর ব্যানারে এ মানববন্ধন হয়।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, সাগরী নিখোঁজের ১৫দিন পেরিয়ে গেলেও পুলিশ তার কোনো সন্ধান বের করতে পারেনি। পুলিশ বলছে, তার কাছে ফোন না থাকায় খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। এটা প্রশাসনের কেমন অজুহাত আমাদের তা বুঝে আসে না। আমরা এতকিছু বুঝি না আগামী ১২ ঘণ্টার মধ্যে তার সন্ধান চাই।

মানববন্ধন চলাকালে অনুষ্ঠিত সমাবেশে সাগরীর বাবা শম্ভু শিং বলেন, তার মেয়ে জীবিকার তাগিদে দুই বাড়িতে কাজ করতো। গত ১৩ তারিখে এক বাড়িতে কাজে গিয়ে আর ফিরে আসেনি। খোঁজ করতে গেলে ওই বাড়ির মালিক বলে কাজ শেষে আপনার মেয়ে বাড়ি ফেরার কথা বলে চলে গেছে। কিন্তু সেদিন থেকেই তার মেয়ে আর বাড়ি ফিরে আসেনি।

সাগরীর মা নিরদা রানি বলেন, তারা এ ঘটনায় শাহ মখদুম থানায় নিখোঁজের একদিন পর ১৪ মার্চ সন্ধ্যায় মেয়েকে উদ্ধারের জন্য সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন। কিন্তু আজ ১৫ দিন পার হলেও কোনো ধরনের খোঁজ-খবর দেয়নি থানা পুলিশ। আমার মেয়ে এক সন্তানের মা। আমার নাতি তার মাকে ছাড়া সব সময়ই কান্নাকাটি করছে। তারা সবাই মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন। তিনি মেয়েকে ফেরত চান।

নিখোঁজ সাগরীর ছোট বোন ঋতু বলেন, তার বোন স্বামী পরিত্যক্তা তাকে স্থানীয় কামাল ও সুফিয়ান নামক দুজন ব্যক্তি মাঝেমধ্যেই বিয়ের প্রস্তাব দিতো এবং উত্ত্যক্ত করতো। তাদের সন্দেহ তার বোনের হঠাৎ নিখোঁজের ঘটনায় তারা জড়িত থাকতে পারেন।

ঘণ্টাব্যাপী এ মানববন্ধন কর্মসূচিতে পাহাড়িয়া নেতা অন্দ্রিয়াস বিশ্বাস, জাতীয় আদিবাসী পরিষদের সাধারণ সম্পাদক গণেশ মার্ডি, জাতীয় আদিবাসী পরিষদের রাজশাহী শাখার সভাপতি বিমল চন্দ্র রাজোওয়ার, পাহাড়িয়া আদিবাসী ছাত্র পরিষদের সাবেক সভাপতি জয় খ্রীষ্টফার বিশ্বাস, উদীচী রাজশাহীর সাধারণ সম্পাদক ব্রজেন্দ্রোনাথ প্রামানিকসহ আরও অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.