৪১তম বিসিএস পুলিশ ক্যাডারে সুপারিশ প্রাপ্ত হলেন গোদাগাড়ীর কৃষক সন্তান শাহীন

0 ৭২
মোঃ রবিউল ইসলাম মিনাল, গোদাগাড়ী পৌর প্রতিনিধি:  সদ্য ঘোষিত ৪১ তম বিসিএস পরীক্ষার ফলাফলে পুলিশ ক্যাডারে সুপারিশ প্রাপ্ত হয়েছেন রাজশাহীর গোদাগাড়ীর সন্তান মোঃ শাহীন আলী( ইউসুফ) । তিনি গোদাগাড়ী পৌরসভার মেডিক্যাল মোড় হাটপাড়া এলাকার মো: নাইমুল হক এর ছোট ছেলে।
তিনি ২০০৬ সালে হাটপাড়ার আয়েশা সাবের দাখিল মাদ্রাসা থেকে বিজ্ঞান বিভাগে জিপিএ ৫.০০ নিয়ে এসএসসি (দাখিল) এবং ২০০৮ সালে গোদাগাড়ী গভ.  হাই স্কুল কলেজ থেকে বিজ্ঞান বিভাগে জিপিএ ৫.০০ নিয়ে এইচএসসি পাশ করেন। পরবর্তীতে তিনি ২০১২ সালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় এর  রসায়ন বিভাগ থেকে সিজিপিএ ৩.৬৫ নিয়ে স্নাতক ডিগ্রী এবং ২০১৩ সালে সিজিপিএ ৩.৮৮ নিয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রী অর্জন করেন।
পড়াশোনা শেষে তিনি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের শিল্প মন্ত্রলয়, শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ে চাকুরি করেন। বর্তমানে তিনি ৩৮ তম বিসিএস নন ক্যাডার থেকে নাচোল সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজে কর্মরত আছেন।
চাকরির পাশাপাশি পড়াশোনার মধ্যে নিজেকে ব্যস্ত রেখে অবশেষে  চতুর্থবারের চেষ্টায় ৪১তম বিসিএস পরীক্ষায় পুলিশ ক্যাডারে ASP পদে সুপারিশ প্রাপ্ত হয়েছেন।।
স্বপ্ন জয়ের গল্পে মোঃ শাহীন আলী(ইউসুফ) বলেন, ছোটবেলা থেকেই তিনি পড়াশোনায় মনোযোগী ছিলেন, তিনি বলেন আমার বাবা একজন কৃষক।তিনি অক্লান্ত পরিশ্রম করে আমাকে পড়াশোনা করিয়েছেন। লেখাপড়া করাতে গিয়ে অনেক সময় আর্থিক সংকটে পড়তে হয়েছে সেখানে অনেক ক্ষেত্রে আমার শিক্ষকরা অনেক গুরত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন তাদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ ।
আমার এ অর্জনের পেছনে আমার বাবা,মা, ভাই,বোন ও বন্ধুরা আমাকে অনেক সাপোর্ট দিয়েছে। এখানে বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য যে সংসার জীবনে প্রবেশের পরে আমার সহধর্মিণী আমাকে মানুষিকভাবে অনেক শক্তি ও সাহস জুগিয়েছে যা আমার সাফল্য অর্জনে বেশ কাজে দিয়েছে।
মোঃ শাহীন আলী (ইউসুফ) বলেন আমি গোদাগাড়ী সর্বস্তরের মানুষকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি সকলে আমার জন্য দোয়া করবেন, আমি যেন  সৎ থেকে নিজের সততা বজায় রেখে দেশের জন্য, দেশের মানুষের জন্য কিছু করতে পারি এবং আমাদের গোদাগাড়ীর  নাম উজ্জ্বল করতে পারি।
 ছোটবেলা থেকেই স্বপ্ন ছিলো বিসিএস ক্যাডার হয়ে দেশ ও দেশের মানুষের জন্য কিছুর করার। আজ আমার সেই স্বপ্ন বাস্তবে রুপান্তরিত হয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.