এস. এম. মুজিবুল হক পাভেলের “প্রেসিডেন্ট গ্রাম প্রতিরক্ষা দল” পদক অর্জন

350

নিউজ প্রতিবেদক: আনসার বাহিনীর মনিটরিং শাখার উপ-পরিচালক এস. এম. মুজিবুল হক পাভেলকে সততা, নিষ্ঠা ও সাহসিকতার সাথে দায়িত্ব পালনের অসামান্য প্রশংসার কারণে বাহিনীর ৪০তম জাতীয় সমাবেশে ১৩ ফেব্রুয়ারি আনসার একাডেমিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা “প্রেসিডেন্ট গ্রাম প্রতিরক্ষা দল” পদক পড়িয়ে দেন। তিনি খুলনা জেলার রুপসা উপজেলার কাজদিয়া গ্রামের এস. এম সাহিদুল হকের সন্তান।

তিনি ২০১২ সালের ০৩ জুন  তারিখে ৩০তম বিসিএস ক্যাডারের মাধ্যমে সহকারী পরিচালক/ব্যাটালিয়ন উপ-অধিনায়ক পদে বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীতে যোগদান করেন। তিনি ২০১২ সালের ২৪ জুন হতে ২০১৩ সালের ২৩ জুন পর্যন্ত ৫২ সপ্তাহ মেয়াদী বিসিএস (আনসার) কর্মকর্তা মৌলিক প্রশিক্ষণ কোর্সে ড্রিল অনুশীলনে শ্রেষ্ঠ কর্মকর্তা হিসেবে নির্বাচিত হন। এরপর তিনি  ২০১৪ সালের এপ্রিল হতে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্স (এসএসএফ) এ কর্মরত থেকে দেশে বিদেশে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও জাতির পিতার পরিবারবর্গসহ রাষ্ট্রকর্তৃক ঘোষিত অতিগুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের নিরাপত্তায় সততা, নিষ্ঠা ও সাহসিকতার সাথে দায়িত্ব পালন করেন।

তিনি ২০১৫ সালের ডিসেম্বর হতে ২০১৬ সালের আগস্ট পর্যন্ত তুরস্কের আঙ্কারার জেন্ডারমারি একাডেমিতে অনুষ্ঠিত জেন্ডারমারি অফিসার্স বেসিক ট্রেনিং এ মেধা তালিকায় ৩য় স্থান অর্জন করেন। জেন্ডারমারি অফিসার্স বেসিক ট্রেনিং চলাকালিন তুরস্কে সামরিক অভ্যুত্থান সংঘঠিত হয়। জীবনের ঝুঁকি থাকা সত্ত্বেও কোর্স সম্পন্ন করে বিদেশের মাটিতে বাহিনীর সুনাম ও ভাবমূর্তি অক্ষুণ্ন রাখার সাহসিকতার ভূমিকা পালন করেন।

এবছর আনসার বাহিনীর ৪০তম জাতীয় সমাবেশে বীরত্বপূর্ণ/সাহসিকতাপূর্ণ ও প্রশংসনীয়/ দৃষ্টান্তমূলক এবং সেবামূলক কাজের স্বীকৃতিস্বরুপ আনসার বাহিনীর বিভিন্ন পদবীর সারাদেশের ১৪৩জনকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পদক পড়িয়ে দেন।

x