ঢাকায় হলিউডের ‘মর্টাল কমব্যাট’

0 65

বাংলাদেশের স্টার সিনেপ্লেক্সে আগামীকাল রোববার মুক্তি পাচ্ছে ‘মর্টাল কমব্যাট’ শিরোনামে হলিউডের সিনেমা। মার্শাল আর্ট ঘরানার সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন অস্ট্রেলিয়ার চলচ্চিত্রকার সাইমন ম্যাকোয়েড। প্রযোজনা করেছেন জেমস ওয়েন।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে স্টার সিনেপ্লেক্স জানিয়েছে, এরই মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে মুক্তি পাওয়া সিনেমাটি দর্শকের মধ্যে বিশেষ আগ্রহ তৈরি করেছে। করোনাভাইরাসের মধ্যেও সিনেমাটি বক্স অফিস রিপোর্ট আশাব্যাঞ্জক। সমালোচকদের মতে, সিনেমাটির আয়োজন ও নির্মাণে আকর্ষণ রয়েছে।

 

১৯৯২ সালের জনপ্রিয় ভিডিও গেম ‘মর্টাল কমব্যাট’ থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে নির্মাণ করা হয় একই নামের সিনেমা। ১৯৯৫ সালে মুক্তি পায় এটি। ১৯৯৭ সালে এর সিক্যুয়েল ‘মর্টাল কমব্যাট : অ্যানিহাইলেশন’ মুক্তি পায়। ফাইটিং গেম হিসেবে যতটা জনপ্রিয় ছিল ‘মর্টাল কমব্যাট’, সিনেমা দুটি আবার ততটা হতে পারেনি। এবার নতুন করে নির্মিত হলো ‘মর্টাল কমব্যাট’।

 

সাফল্যের দিক থেকে আগের সিনেমাগুলোর চেয়ে এ ছবিকে বেশ খানিকটা এগিয়ে রাখছেন তাঁরা। জনপ্রিয় ‘মর্টাল কমব্যাট’ ভিডিও গেম যেখানে সহিংসতা আর দুর্ধর্ষ সংঘাতে ভরপুর, সেখানে তা অবলম্বনে চলচ্চিত্রগুলো অনেকটাই কোমল আর সার্বজনীন। এ সিনেমাতে সেটা ভাঙার চেষ্টা করা হয়েছে। অ্যাকশন দৃশ্যগুলোতে দুর্দান্ত সব কাজ করা হয়েছে।

 

‘মর্টাল কমব্যাট’ ফ্র্যাঞ্চাইজির ভক্ত এবং চিত্রনাট্যকার গ্রেগ রুসো টুইটারে জানিয়েছেন, এবার ‘মর্টাল কমব্যাট’-এ মারামারি আর সহিংসতার দৃশ্যগুলো অনেক বাস্তবসম্মত এবং বিশ্বাসযোগ্যভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে, যা দর্শকদের আকৃষ্ট করবে।

 

রুসো বলেন, প্রথমবারের মতো ‘মর্টাল কমব্যাট’ আর-রেটেড হবে। ‘মর্টাল কমব্যাট’ ভিডিও গেমের সিংহভাগই এম-রেটেড (ম্যাচিওর কন্টেন্ট), তবে এর ব্যতিক্রমও আছে।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.

x