দূর্গাপুরে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে নিজেই আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি যুবক

0 ৩১৫

দুর্গাপুর প্রতিনিধি: রাজশাহীর দূর্গাপুরে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষকে ফাঁসানোর জন্য নিজেই নিজেকে আহত করে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে এক যুবক। মঙ্গলবার গভীর রাতে উপজেলার মাড়িয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত ওই যুবকের নাম জেহেল আলী অরুফে (কালু)।

সে মাড়িয়া গ্রামের হোসেন আলীর পুত্র। স্থানীয়রা জানায়, মঙ্গলবার গভীর রাতে কালু প্রতিপক্ষের বাড়ির পাশে রাস্তায় শুয়ে পড়ে চিৎকার করতে থাকে আমাকে বাঁচাও আমাকে মেরে ফেললো। এরপর লোকজন ছুটে এসে দেখে সে মাটিতে পড়ে চিৎকার করছে।

আশেপাশে কেউ নেই। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় এক প্রতাক্ষ্যদর্শী জানান, কালু আনুমানিক রাত সাড়ে এগারোটার দিকে রাস্তার পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় হঠাৎ মাটিতে লুটে পড়ে চিৎকার করতে থাকে আমাকে বাঁচাও। এরপর তার বাড়ির লোকজন এসে তাকে নিয়ে গিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করে।

প্রতিপক্ষ রবিউল ইসলাম জানান, কিছু দিন আগে এই কালু হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে আমার বড় ভাই আবুল হোসেনের মাথা ফাটিয়ে দেয় পরে হাসপাতালে বেশ কিছু দিন ভর্তি থাকার পর বাসায় এখন বিশ্রাম রয়েছেন।

এঘটনায় কালুর বিরুদ্ধে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। সেজন্য কালু নিজেকে বাঁচাতে ও আমাদের বিপদে ফেলার জন্য কৌশলে এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

এ বিষয়ে দূর্গাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ খুরশিদা বানু কনা জানান, হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগে জেহেল আলীর বিরুদ্ধে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে এছাড়া কালুর নিজে আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হবার বিষয়টি আমার জানা নেই।

Leave A Reply

Your email address will not be published.