দেশকে ধ্বংস করার লক্ষ্যে ইহুদী নাসারাদের ইন্ধনে সৃষ্টি করা হয়েছে জঙ্গিবাদ-লিটন

541

Bijoy-Rajshahi-Pic-30[1]-8-16রাজশাহী অফিস : রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে, জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস ও মাদক বিরোধী কার্যক্রম জোরদার এবং জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষে মহানগরীর সকল মসজিদের পেশ ইমাম, মাদ্রাসার অধ্যক্ষ, মাদ্রাসা ও মসজিদ কমিটির সভাপতি এবং সেক্রেটারীদের সাথে আলোচনা ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে নগর ভবনের গ্রিনপ্লাজায় আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের দায়িত্বপ্রাপ্ত মেয়র মোঃ নিযাম উল আযীম। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন।
বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সোনার বাংলা গড়ে তোলার লক্ষে জননেত্রী শেখ হাসিনার বর্তমান সরকার আন্তরিকভাবে কাজ করে দেশকে এগিয়ে নিয়ে চলেছে। আর দেশকে ধ্বংস করার লক্ষ্যে ইহুদী নাসারাদের ইন্ধনে সৃষ্টি করা হয়েছে জঙ্গিবাদ। কম ধর্মীয় জ্ঞান সম্পন্ন শিক্ষিত যুবকদের ইসলাম সম্পর্কে ভূল বুঝিয়ে জঙ্গি বানানো হচ্ছে। তাদের হাতে তুলে দিচ্ছে অর্থ ও অস্ত্র। মানুষ খুন করে তাদেরকে দেখানো হচ্ছে বেহেস্তে যাওয়ার স্বপ্ন। তারা খুন করছে দেশী-বিদেশী মানুষকে। ইসলাম কখনও মানুষ খুন সমর্থন করে না। যুবসমাজ যেন ভূল পথে পরিচালিত না হয় তাঁদেরকে কেউ যেন ভূল বুঝাতে না পারে এ বিষয়ে সচেতন করে তুলতে ইমামগণের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তাঁরাই পারেন যুবসমাজকে সঠিক পথে পরিচালিত করতে। অভিভাবকদের এ বিষয়ে সচেতন থাকতে হবে যেন কোন সন্তান বিপথগামী না হয় ভূল বুঝে জঙ্গিবাদের সাথে জড়িয়ে না যায়। আমরা কেউই চায় না আমাদের সন্তানেরা ভূল পথে পরিচালিত হোক।
তিনি বলেন, সারাদেশে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সামাজিক সংগঠন জঙ্গিবাদের বিরূদ্ধে সোচ্চার হয়ে উঠেছে। রাজশাহী শান্তির নগরী, শান্তিপ্রিয় এখানকার মানুষ ফেৎনা-ফ্যাসাদে জড়াতে চাই না। শান্তির এই নগরীকে সমৃদ্ধ করতে পরিবেশ বজায় রাখতে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ রুখতে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানান তিনি।
সভাপতির বক্তব্য রাখতে গিয়ে দায়িত্বপ্রাপ্ত মেয়র মোঃ নিযাম উল আযীম ইমামদের উদ্দেশ্যে বলেন, ইহুদি সৃষ্ট আইএস বা জঙ্গিরা ইসলামকে কলুষিত করার জন্য ইসলামের নামে সন্ত্রাস সৃষ্টি ও মানুষ খুন করছে। যুবকদের ভূল বুঝিয়ে জঙ্গি বানাচ্ছে। তাই জুম্মার খুতবায় এ সকল বিষয় তুলে ধরতে হবে। জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস ও মাদকের বিষয়ে সবাইকে সোচ্চার হতে হবে।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্যানেল মেয়র-২ একেএম রাশেদুল হাসান। বক্তব্য রাখেন ২০নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মুস্তাক হোসেন রতন, ১৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বেলাল আহমেদ, ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর কামারুজ্জামান, ইমাম সমিতির সাধারণ সম্পাদক ড. কাউসার আহম্মেদ, সাহেববাজার বড় মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা মোঃ আব্দুল গণি, মহিষবাথান পূর্বপাড়া মসজিদের পেশ ইমাম মুফতি হাফেজ মুস্তাক আহমেদ, রাসিকের ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা খন্দকার মোঃ মাহাবুবুর রহমান। সভায় মহানগরীর বিভিন্ন মসজিদ-মাদ্রাসার সভাপতি, সেক্রেটারী, ইমাম, মাদ্রাসার অধ্যক্ষ, রাসিকের কাউন্সিলরবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

x