বায়ার্নের ঘরের ছেলে আলাবাকে সই করাল রিয়াল

১১ বছরে বায়ার্নে ২৭ ট্রফি জয়ের পর রিয়ালের পথে পা বাড়ালেন অস্ট্রিয়ান

0 75

১১ বছর, ২৭ ট্রফি। বায়ার্ন মিউনিখে(Bayern Munich) তাঁর সাফল্যের পরিসংখ্যানকে এককথায় এভাবেই ব্যাখ্যা করা যায়। সিনিয়র কেরিয়ারের প্রায় গোটাটাই কেটেছে জার্মান জায়ান্টদের হয়ে। মাঝে ২০১১ কেবল লোনে খেলেছেন হফেনহেইমে(Hoffenheim)। এহেন বায়ার্নের ঘরের ছেলে ডেভিড আলাবাকে(David Alaba) তুলে নিয়ে চমক দিল স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদ(Real Madrid)। ২৮ বছরের অস্ট্রিয়ান ফুটবলার ফ্রি-ট্রান্সফারেই যোগ দিলেন ‘লস ব্ল্যাঙ্কোস'(Los Blancos) স্কোয়াডে।

লেফট-ব্যাক, সেন্ট্রাল ডিফেন্স, মাঝমাঠ, উইং- যে কোনও পজিশনেই খেলতে স্বচ্ছন্দ এই ইউটিলিটি ফুটবলার রিয়ালের জন্য দুর্দান্ত এক অন্তর্ভুক্তি বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল। বায়ার্ন নতুন করে চুক্তি পুনর্নবীকরণ না করায় অস্ট্রিয়ানকে পেতে ঝাঁপিয়েছিল ইউরোপের প্রথম সারির একাধিক ক্লাব। কিন্তু আলাবা শেষ পর্যন্ত স্যান্তিয়াগো বার্নাব্যুয়েই(Santiago Bernabeu) যোগ দিলেন। শুক্রবার আলাবার যোগ দেওয়ার খবরটি নিশ্চিত করেছেন স্প্যানিশ জায়ান্টরা।

 

২০১০ বায়ার্নের সিনিয়র দলে অভিষেকের পর ‘বাভারিয়ান'(Bavarians)-দের হয়ে ১০টি ঘরোয়া লিগ খেতাব(Bundesliga), ৬টি জার্মান কাপ(German Cup), সর্বোপরি ২টি চ্যাম্পিয়নস লিগ(UCL) জয়ী দলের সদস্য ছিলেন আলাবা। বাভারিয়ানদের হয়ে চারশোরও বেশি ম্যাচ খেলা এই অস্ট্রিয়ান বায়ার্নের অন্যতম সফল দলের গুরুত্বপূর্ণ এক সদস্য হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠা করতে পেরেছিলেন। তবুও গত নভেম্বরেই বায়ার্ন নিশ্চিত করেছিল যে ২০২০-২১ মরশুমের শেষে আলাবার সঙ্গে তারা চুক্তি পুনর্নবীকরণ করবে না। আলাবাও গত ফেব্রুয়ারিতে প্রিয় ক্লাব ছেড়ে অন্যত্র পাড়ি দেওয়ার কথা ঘোষণা করেন।

আলাবাকে নিতে রিয়ালের পাশাপাশি আসরে নেমেছিল বার্সেলোনা(Barcelona), পিএসজি(PSG), ম্যান ইউ(Man Utd), ম্যান সিটি(Man City), লিভারপুল(Liverpool), চেলসির(Chelsea) মতো দলগুলি। কিন্তু শেষমেষ ‘লস ব্ল্যাঙ্কোস’-দের সঙ্গেই চুক্তিবদ্ধ হলেন তিনি। অস্ট্রিয়ানকে স্বাগত জানিয়ে ‘লস ব্ল্যাঙ্কোস’-দের তরফ থেকে লেখা হয়েছে, ‘ডেভিড আলাবার সঙ্গে রিয়াল মাদ্রিদের চুক্তি চূড়ান্ত হয়েছে। আগামী পাঁচ বছর সে এই ক্লাবেই থাকবে। ২০২১ ইউরোর পরেই রিয়াল মাদ্রিদের জার্সি গায়ে ডেভিড আলাবার আত্মপ্রকাশ হবে।’

 

উল্লেখ্য, অস্ট্রিয়ার হয়ে ৭৯ ম্যাচ খেলা আলাবা ইউরোতে(EURO 2020) দেশের জার্সিতেও ভরসার আরেক নাম। গ্রুপ-সি’তে অস্ট্রিয়ার সঙ্গে সেখানে রয়েছে নেদারল্যান্ডস, ইউক্রেন এবং উত্তর ম্যাসিডোনিয়া।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.

x