বিদ্যালয়ের অভিভাবক সমাবেশে সেরা শিক্ষিকা হিসেবে পুরস্কৃত করা হলো নাজমুন নাহার মীমকে

0 ১০৩

আল-আমিন হোসেনঃ চুয়াডাঙ্গার  আলমডাঙ্গা উপজেলার শ্রীরামপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে    অভিভাবক সমাবেশে সেরা শিক্ষিকা হিসেবে পুরস্কৃত করা হলো নাজমুন নাহার মীমকে। তিনি  ২০১৯ সালেও জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ শিক্ষিকা নির্বাচিত হয়েছিলেন।রবিবার ২০ আগষ্ট বেলা ১১ টায়  শ্রীরামপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের হলরুমে  বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতির  পক্ষ থেকে তাকে ক্রেস্ট প্রদান করা  হয়।

সহ- সভাপতি কামরুল হাসান এর সঞ্চালনায়  ,  অভিভাবক  সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয় এর প্রধান শিক্ষক রায়হান উদ্দিন, সদস্য ওয়াদুল আলীসহ স্কুলের সকল শিক্ষক-শিক্ষিকা এবং ছাত্র-ছাত্রীদের অভিভাবকবৃন্দ।
বক্তব্যে  সভাপতি  জাকেরুল ইসলাম বলেন দিন বদলে হাওয়া লেগেছে,  গ্রাম গুলো শহরে পরিণত হচ্ছে সেই সাথে আমাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মান গুলো শহরের অন্যান্য স্কুলের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে হবে ।

আমি  ১ বছর ৬ মাস এই স্কুলের সভাপতি হয়েছি। ব্যর্থতা মানুষের থাকবেই, আমিও তার উর্দ্ধে নয়,  কিন্তু এই  স্বল্প  সময়ের মধ্যে ২৯ লক্ষ ৪৫ হাজার টাকা দিয়ে স্কুলের সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করেছি। আরো এক কোটি টাকা নতুন বিল্ডিং ওয়াক পারমিটের অপেক্ষায় রয়েছে যা আগস্ট মাসেই শুরু হবে । স্বল্প সময়ের  মধ্যে যে কাজগুলো করেছি  যদি এর ভেতরে এক টাকা কেউ দুর্নীতি দেখাতে পারেন, তাহলে  আমি তাকে পুরস্কৃত করব। মানুষেরা  দেখল আকাশের মত বাধাহীন মরুসঞ্চার বেদুইন কত ঘাত-প্রতিঘাত অতিক্রম করে স্কুলের সীমানা নির্ধারণ করা হয়েছে  ।

অভিভাবকদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, গ্রামের লেখাপড়ার মান উন্নয়নের জন্য নিজ অর্থায়নে  সাপ্তাহিক পরীক্ষার ব্যবস্থা করবো, তিন মাস অন্তর-অন্তর অভিভাবকদের  নিয়ে আলোচনা সভা,  এবং শিক্ষকদের জন্যও বেস্ট টিচার অ্যাওয়ার্ড নিজ অর্থায়নে আমি প্রদান করবো। আজকে আমি নিজ অর্থায়নে সেরা শিক্ষিকাকে   ক্রেস্ট প্রদান  করলাম, এটা দেখে আরো শিক্ষক-শিক্ষিকা অনুপ্রাণিত হবে। অর্জনের গল্পগুলো যখন বলবে প্রজন্ম থেকে প্রজন্ম  তখন বারবার মনে উঁকি দেবে হারানো সোনালী দিনগুলো।ব্যর্থ হওয়া মানে হেরে যাওয়া নয়, ব্যর্থতা নতুন করে আবার শুরু করার প্রেরণা। হাল ছেড়ে দেওয়া মানেই হেরে যাওয়া।

স্বপ্ন সেটা নয় যেটা মানুষ, ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে দেখে; স্বপ্ন সেটাই যেটা পূরনের প্রত্যাশায়, মানুষ ঘুমাতে পারে না। জ্ঞান আপনাকে শক্তি দেবে, তবে চরিত্র সম্মান দেবে। অভিভাবক সমাবেশ শেষ নির্বাচিত শ্রেষ্ঠ শিক্ষিকার   হাতে ক্রেস্ট তুলে দেন বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা।

নাজমুন নাহার মীম ২০০৬ সালে শ্রীরামপুর  সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক পদে যোগদান করে। শিক্ষকতা জীবন শুরু করে এখন অবধি পর্যন্ত   শ্রীরামপুর  স্কুলে জ্ঞানের আলো শিক্ষার্থীদের মাঝে  ছড়িয়ে যাচ্ছেন। ২০১৯  সালে জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ শিক্ষিকা নির্বাচিত হয়। তিনি  ২০০২ সালে আলমডাঙ্গা  গার্লস স্কুল থেকে এসএসসি পাশ করে এবং ২০০৪ সালে আলমডাঙ্গা ডিগ্রী কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করার পরে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইসলামী ইতিহাসে  গ্রাজুয়েশন কমপ্লিট করে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.