শিক্ষার্থীকে না চিনলে ওই স্কুলের এমপিও বাতিল

0 2,170

unnamed-34-696x463রাজশাহী অফিস : শিক্ষামন্ত্রী নরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, প্রতিটি শিক্ষককে তার বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীকে চিনতে হবে। আপনারা শিক্ষকরা বেশি শিক্ষার্থীদের ভর্তি করার জন্য অনুমতি নিয়ে এসে শিক্ষার্থীদের চিনবে না তা হবে না। তাহলে কম শিক্ষার্থী ভর্তি করান। বিদ্যালয়ে যে শিক্ষার্থী থাকবে তাদের সবাইকে চিনতে হবে। না হলে চাকরি করার দরকার নাই।  শিক্ষক যদি সরকারি বা বেসরকারী চাকরি করেন তা বাতিল করা হবে।

মঙ্গলবার বেলা ১২ টায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ রামেক হাসপাতালের কাইছার রহমান চৌধুরী অডিটোরিয়ামে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড রাজশাহী আয়োজিত  শিক্ষার উন্নত পরিবেশ, জঙ্গীবাদমুক্ত শিক্ষাঙ্গন শীর্ষক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, মাদ্রাসা জঙ্গি গড়ার কারখানা এ কথাটি ভুল। জঙ্গি মাদ্রাসা বা স্কুল কলেজের শিক্ষার্থী হতে পরে। মাদ্রাসা একটা শিক্ষার প্রতিষ্ঠান। এইটি চক্র ইসলামকে ব্যবহার করে জঙ্গি কার্যক্রম চালাচ্ছে। তারা মনে করে গুলি করে বোমা মেরে মানুষ হত্যা করে ইসলাম কায়েম করে বেহেস্তে যাওয়া যায়। গুলি করে বোমা মেরে মানুষ ইসলামের শিক্ষা নায়। গুলি করে বোমা মেরে মানুষ হত্যা ইসলাম না।

তিনি বলেন, শিক্ষক ও অভিভাবকদের খেয়াল রাখতে হবে তাদের সন্তান ও শিক্ষার্থীর ওপরে। তারা কি করে বা কাদের সঙ্গে মেলা-মেশা করে তার দিকে খেয়াল রাখতে হবে। বিএনপি-জামায়াত সরকার জঙ্গি করেছে। বাংলাদেশ এখন উন্নত রাষ্ট্রের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে তা স্বাধীনতা বিরোধীরা মেনে নিতে পারছেন না। তারা দেশে জঙ্গি হত্যাকা- চালিয়ে দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করতে চাচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, গুলশানের জঙ্গি হামলার সময় বিদেশী ও জঙ্গিসহ কয়েকজন নিহত হন। এ ঘটনায় কয়েকজন সন্দেহ ভাজনকে আটক করে পুলিশ। এই হামলাকারীরা তারা কাউকে চেনে, তাদের কারো সঙ্গে সম্পর্ক বা সত্রুতাও নেই। তারা মানুষ মেরে তাদের জঙ্গিত্ব কায়েম করতে চাই। এই জঙ্গিদের মগজ ধোলায় করা হয়। তোমরা মারতে গিয়ে মরলে বেহেস্ত পাবা।

মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী সদর আসনের সাংসদ ফজলে হোসেন বাদশা, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব সোহরাব হোসাইন, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক শামসুল হুদা, রাজশাহী বিভাগীয় ভারপ্রাপ্ত কমিশনার মুনির হোসেন, রাজশাহী জেলা প্রশাসক কাজী আশরাফ উদ্দীন প্রমূখ।

Leave A Reply

Your email address will not be published.