সব ভুলে নতুন শুরুর বার্তা দিলেন সৌম্য

0 85

ক্রিকেটে বড় দুঃসময় পার করছে বাংলাদেশ। করোনার মধ্যে প্রথম বিদেশ সফরে গিয়ে ভরাডুবি। সীমিত ওভারের দুই ফরম্যাটেই কিউইদের কাছে হোয়াইটওয়াশ হয়েছে বাংলাদেশ। এরপর শ্রীলঙ্কাতে সাদা-পোশাকেও মলিন। সবমিলিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়ার মতো অবস্থা।

টানা ব্যর্থতার মধ্যেই কদিন বাদে ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলবে বাংলাদেশ। সফরকারীদের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলবে স্বাগতিকরা। আসন্ন সিরিজে সব ভুলে নতুন শুরুর বার্তা দিলেন বাঁহাতি ওপেনার সৌম্য সরকার।

 

লঙ্কানদের বিপক্ষে সিরিজকে সামনে রেখে এরই মধ্যে অনুশীলন শুরু করে দিয়েছে বাংলাদেশ দল। অনুশীলনে আসা সৌম্য সরকার বিসিবির পাঠানো এক ভিডিও বার্তায় আশার বানী শুনিয়ে বলেন, ‘বাংলাদেশের জন্য যে কোনো ম্যাচই গুরুত্বপূর্ণ। যেগুলো নিউজিল্যান্ডে হয়ে গেছে, ওগুলো নিয়ে চিন্তা করে কোনো লাভ নেই। সামনের দিকে চিন্তা করাটাই ভালো। শ্রীলঙ্কার সঙ্গে আমাদের যে ওয়ানডে সিরিজটা আছে, আগেরগুলো ভুলে সবাই নতুন করে ভালো পারফর্ম করবে। ঘরের সিরিজ আমাদের ঘরেই থেকে যাবে। আমরা আশাবাদী, সব খেলোয়াড় দেশের মাটিতে ভালো খেলবে।’

 

সৌম্য আরো বলেন, ‘যারা শ্রীলঙ্কায় টেস্ট ম্যাচ খেলেছে, অনেকটা সময় ব্যাটিং করেছে বা বোলিং করেছে, এখানে যদি সেভাবেই লাইন-লেংথ ঠিক রেখে বোলিং করে বা শতভাগ দিয়ে ব্যাটিং করতে পারে, সিরিজটা খুব ভালো হবে।’

 

এ ছাড়া আসন্ন সিরিজে থাকছেন সাকিব আল হাসান ও মুস্তাফিজুর রহমান। দলের দুই অন্যতম তারকা পাওয়াও বাড়তি সুযোগ বলে মনে করেন সৌম্য, ‘সাকিব ভাই খেললে সব সময় দুইটা দিকই পাওয়া যায়। এটা অবশ্যই দলের জন্য অনেক বড় একটা ব্যাপার। আর মুস্তাফিজকে আমরা দেখছিলাম, আইপিএলে অনেক ভালো বল করছে। অবশ্যই দলের জন্য এটা খুব ভালো হবে যে, তারা দুজন একসঙ্গে ফিরছে। আশা করব যে, তারা দুইজন অনেক ভালোভাবেই সিরিজটা শেষ করবে।’

 

আগামী ২৩ মে থেকে শুরু হবে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কার মধ্যকার ওয়ানডে সিরিজ। প্রথম ওয়ানডের পর দ্বিতীয় ম্যাচের আগে থাকছে দুদিন বিরতি। সিরিজের পরের দুটি ম্যাচ হবে ২৫ ও ২৮ মে। সবগুলো ম্যাচই হবে মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। সিরিজ শেষে ২৯ মে ঢাকা ছাড়বে লঙ্কানরা। সিরিজটি ওয়ানডে সুপার লিগের অংশ।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.

x