সর্বাত্মক লকডাউন শুরু

0 81
করোনার সংক্রমণ রোধে কড়া বিধিনিষেধের শুরুর দিন বুধবার সকালে ফাঁকা রাজধানীর গুলিস্তানের সড়ক। ছবি :  সংগৃহীত

নভেল করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে দেশে দ্বিতীয়বারের মতো পহেলা বৈশাখসহ সব ধরনের সমাগমের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে সরকার।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

রাজধানী ঢাকাসহ সারা দেশে আজ বুধবার (১৪ এপ্রিল) থেকে চলাচলে বিধিনিষেধের বাস্তবায়ন শুরু হয়েছে। সকালে ঢাকার ফার্মগেট, কারওয়ান বাজার, শাহবাগ, পল্টন, গুলিস্তান, মোহাম্মদপুর ও শ্যামলী এলাকা ঘুরে দেখা যায়, এসব এলাকার সড়কে শুধু পণ্যবাহী কিছু যানবাহন চলছে। নেই কোনো গণপরিবহণ। রাস্তায় মানুষজনও একেবারে সীমিত।

 

রাজধানীর মোড়ে মোড়ে মোতায়েন করা হয়েছে পুলিশ। সন্দেহজনক যানবাহনে চলছে তল্লাশি।

 

চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা, সিলেট, মৌলভীবাজার, রাজশাহী, বগুড়া, খুলনা, কুষ্টিয়া, বরিশাল ও পটুয়াখালীসহ অনেক জেলা শহরগুলোতেও এদিন সকালে একই অবস্থা বিরাজ করছে বলে জানা গেছে।

 

এর আগে ৫ থেকে ১১ এপ্রিল পর্যন্ত প্রথম বিধিনিষেধ দেওয়া হয়। পরে আরও দুদিন বাড়িয়ে ১৪ এপ্রিল ভোর পর্যন্ত চলমান করা হয়।

 

গত সোমবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের প্রজ্ঞাপনে ১৪ এপ্রিল সকাল ৬টা থেকে থেকে ২১ এপ্রিল মধ্যরাত পর্যন্ত বিধিনিষেধ আরোপের ঘোষণা দেওয়া হয়। এতে বলা হয়, এ সময়ের মধ্যে সরকারি-বেসরকারি সব প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে। তবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে খোলা থাকবে শিল্প-কারখানা।

 

শুধুমাত্র নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যপরিবহন চলবে। দুরপাল্লার বাসসহ বন্ধ থাকবে সব ধরনের গণপরিবহণ।

 

প্রথমে আর্থিক প্রতিষ্ঠানসহ ব্যাংক বন্ধের কথা বলা হলেও গতকাল মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংক জানায়, সীমিত আকারে বেলা ১টা পর্যন্ত চালু থাকবে ব্যাংক লেনদেন।

 

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.

x