হাসপাতাল ছাড়লেন শচীন

0 130
ভারতীয় সাবেক কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকার। ছবি : সংগৃহীত

সম্প্রতি নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন সাবেক ভারতীয় কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকার। আক্রান্তের পর প্রয়োজনীয় চিকিৎসা নিতে গত ২ এপ্রিল হাসপাতালে ভর্তি হন সাবেক এই তারকা ক্রিকেটার।  আশার খবর হলো, হাসপাতাল ছেড়েছেন তিনি। তবে হাসপাতাল ছাড়লেও আপাতত আরও কিছুদিন বাসায় আইসোলেশনে থাকবেন এই ব্যাটিং গ্রেট।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

হাসপাতাল ছাড়ার পর গতকাল বৃহস্পতিবার টুইটারে চিকিৎসকদের ধন্যবাদ জানিয়ে শচীন লিখেছেন, ‘সবেমাত্র হাসপাতাল থেকে বাসায় এসেছি। বিশ্রাম নিতে ও পুরোপুরি সুস্থ হয়ে উঠতে আইসোলেশনেই থাকব। সব স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ, যাঁরা আমার এত ভালো যত্ন নিয়েছেন এবং এরকম কঠিন পরিস্থিতিতে এক বছরের বেশি সময় ধরে অক্লান্ত পরিশ্রম করে চলেছেন।’

 

গত ২৭ মার্চ কোভিড পজিটিভ হওয়ার খবর দিয়ে টুইটারে শচীন লিখেছিলেন, ‘কোভিডকে দূরে সরিয়ে রাখার জন্য বার বার পরীক্ষা করিয়েছি, সব ধরনের সতর্কতামূলক ব্যবস্থা মেনে চলেছি। যাই হোক, মৃদু কিছু উপসর্গের পর আমার পরীক্ষার ফল পজিটিভ এসেছে। বাড়িতেই কোয়ারেন্টিনে আছি।’

 

এরপর ২ এপ্রিল জানান হাসাপাতালে ভর্তি হওয়ার কথা। শচীন আক্রান্ত হলেও তাঁর পরিবারের সবার করোনা নেগেটিভ এসেছে। সবাইকে সাবধানে থাকার বার্তা দিয়ে ভারতীয় তারকা লিখেছেন, ‘বাড়ির বাকিদের করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। চিকিৎসকদের পরামর্শ মেনে চলছি। সব স্বাস্থ্যকর্মীকে ধন্যবাদ আমার পাশে থাকার জন্য। সবাই সাবধানে থাকুন।’

 

করোনার মধ্যেই কয়েক দিন ধরে ক্রিকেট নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন শচীন। ভারতের রায়পুরে রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজে খেলেছেন তিনি। ভারত, বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, দক্ষিণ আফ্রিকা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও ইংল্যান্ড—এই ছয় দেশকে নিয়ে আয়োজিত হয় এই টুর্নামেন্ট। তবে ফাইনালে লঙ্কানদের হারিয়ে শেষ পর্যন্ত শিরোপা জেতে শচীনের দল ভারত লেজেন্ডসই। দারুণ একটি টুর্নামেন্ট শেষ হওয়ার পর ক্রিকেট ভক্তদের করোনার দুঃসংবাদ দেন ভারতীয় তারকা।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.

x